প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

মো. আবদুর রউফ

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি

খাগড়াছড়ি পৌর কাউন্সিলর নির্বাচিত হলেন যারা

   
প্রকাশিত: ১২:০৫ অপরাহ্ণ, ১৭ জানুয়ারি ২০২১

দ্বিতীয় ধাপে অনুষ্ঠিত পৌরসভা নির্বাচনে খাগড়াছড়ি পৌরসভায় কাউন্সিল পদে এসেছে পাঁচ নতুন মুখ। এরা হলো ২ নং ওয়ার্ডের মানিক পাটোয়ারী। তিনি ৭৪৫ ভোট পেয়ে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন। ৪ নং ওয়ার্ডের বাচ্চুমনি চাকমা। তিনি পেয়েছেন ৬৬৬ ভোট। ৬ নং ওয়ার্ডের মো. রেজাউল করিম। সবচেয়ে কমবয়সী এই তরুন ৮১১ ভোট পেয়ে কাউন্সিলর নির্বাচিত হন। ৭ নং ওয়ার্ডের মংমে মারমা। তিনি পেয়েছেন ১৫৮৩ ভোট। ৯ নং ওয়ার্ডের রিটন তালুকদার। তিনি পেয়েছেন ৬৩৪ ভোট।

এছাড়াও ১নং ওর্য়াডে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় দ্বিতীয় বারের মত কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছে অতীশ চাকমা। ৩ নং ওয়ার্ডে ১৪৩৩ ভোট পেয়ে টানা তৃতীয় বারের মত কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন মো. শাহ আলম। ৫নং ওয়ার্ডে ৭৯৩ ভোট পেয়ে দ্বিতীয় বারের মত কাউন্সিলর নির্বাচিত হন আব্দুল মজিদ। ৮নং ওয়ার্ডে দ্বিতীয় বারের মত কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন পরিমল দেবনাথ। তিনি পেয়েছেন ১২১২ ভোট।

অপরদিকে খাগড়াছড়ি পৌরসভায় সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ১ নতুন মুখ এসেছে। পুরনোদের মধ্যেই বাকি দুইজন।

এই নতুন মুখ হলেন উক্রেইঞো মারমা। তিনি ৩ নং সংরক্ষিত কাউন্সিলর হিসেবে ৭, ৮, ৯ নং ওয়ার্ড থেকে ২৪৬৮ ভোট পেয়ে কাউন্সিলর নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন আয়শা আক্তার। তিনি পেয়েছেন ২২৩৫ ভোট।

১ নং সংরক্ষিত কাউন্সিলর হিসেবে ১, ২, ৩ নং ওয়ার্ডে ৫৫৬৩ ভোট পেয়ে নারী কাউন্সিলর হিসেবে নির্বাচিত হন শাহিদা আক্তার । তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী শরর্বী রানী দে পেয়েছে ১৪৪৯ ভোট।

এছাড়াও ২নং সংরক্ষিত কাউন্সিলর হিসেবে ৪, ৫, ৬ নং ওয়ার্ডে নারী কাউন্সিলর হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন সালেহা রহমান । তিনি পেয়েছেন ২৭৭০ ভোট । তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী অন্তরা খীসা পেয়েছেন ২৩২১ ভোট।

এবারে খাগড়াছড়ি পৌরসভার নির্বাচনে মেয়র পদে ৪জন, ৯টি ওয়ার্ড থেকে ৪০জন সাধারণ কাউন্সিলর ও ১০জন সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন।

খাগড়াছড়ি পৌরসভায় এবারে মোট ভোটার সংখ্যা ছিল ৩৭ হাজার ৮৭জন। এর মধ্য পুরুষ ভোটার ২০ হাজার ৩৫১ জন এবং নারী ভোটার ১৬ হাজার ৭৩৬ জন।

আমিনুল/শিইসি

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: