প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

মা অপেক্ষায় ছিল তানভীর আসছে!

   
প্রকাশিত: ১২:২১ পূর্বাহ্ণ, ১৮ জানুয়ারি ২০২১

ছবি: প্রতীকী

শেরপুরের নকলা উপজেলার জালালপুর ঈদগাহ মাঠসংলগ্ন এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় তানভীর আহমেদ (৯) নামে এক শিশু নিহত হয়েছে। ওই দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়ে নকলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন নিহত শিশুর বাবা আব্দুল হালিম। তারা শেরপুর সদর উপজেলার আন্ধারিয়া কামারপাড়া গ্রামের বাসিন্দা। আজ রোববার সকালে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শিশু তানভীর ঢাকায় অবস্থানরত তার মায়ের সঙ্গে দেখা করার জন্য বাবার সঙ্গে ভ্যানে করে নকলার উদ্দেশে রওনা দেয় আজ রোববার সকালে। কিন্তু মায়ের সঙ্গে আর দেখা করা হলো না শিশু তানভীরের। নকলা থেকে বাসে করে ঢাকায় যাওয়ার কথা ছিল তাদের। নকলা বাসস্ট্যান্ডে পৌঁছার আগেই জালালপুর ঈদগাহ মাঠসংলগ্ন এলাকায় ঢাকা থেকে শেরপুরগামী একটি ড্রিমল্যান্ড বাসকে সাইট দিতে যেয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তা সম্প্রসারণ কাজের জন্য বিটুমিন বহনকারী দাঁড়িয়ে থাকা একটি ট্রাকের সঙ্গে ধাক্কা লাগে ভ্যানটির। এ সময় ভ্যান থেকে শিশুটি ছিটকে পড়ে ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। এ সময় শিশুটির বাবা আব্দুল হালিম গুরুতর আহত হন। পরে স্থানীয় লোকজন তাদেরকে উদ্ধার করে নকলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করেন। এ দুর্ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

জানা যায়, একটি ইঞ্জিনচালিত ভটভটি বিটুমিন বহনকারী ট্রাকটিকে টেনে নিয়ে যাচ্ছিল। ওই দুর্ঘটনায় ভটভটি উল্টে রাস্তার পাশে পড়ে যায়।

নকলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) চন্দন কুমার পাল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পরিবারের আবেদনের প্রেক্ষিতে বিনা ময়নাতদন্তে শিশুর মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে। ইঞ্জিনচালিত ভটভটি ও ভ্যানগাড়ি থানা হেফাজতে নেওয়া হলেও কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। এ ব্যাপারে থানায় মামলা হয়েছে।

কাওসার/নিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: