প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

গৃহবধূকে গণধর্ষণ করে পর্ণোগ্রাফি, ভিডিওসহ প্রধান আসামি গ্রেফতার

   
প্রকাশিত: ৫:০৪ অপরাহ্ণ, ১৯ জানুয়ারি ২০২১

ছবি: প্রতিনিধি

বায়েজীদ আকন্দ, শ্রীপুর (গাজীপুর) থেকে: গাজীপুরের শ্রীপুরে চাঞ্চল্যকর গৃহবধূ অপহরণ ও গণধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি সোহাগকে (৩৫) গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১। মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) দুপুরে র‌্যাব-১ এর গাজীপুরের পোড়াবাড়ী ক্যাম্পের স্পেশালাইজড কোম্পানির অধিনায়ক লে. কর্ণেল মো. মুনির হাসানের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনা করে জেলার জয়দেবপুর থানার মনিপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে। এসময় তার কাছ থেকে গণধর্ষণের এবং পর্ণোগ্রাফির ভাইরাল ভিডিওসহ ১টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত সোহাগ মিয়া ময়মনসিংহ জেলার ভালুকা থানার ভরাডোবা গ্রামের মো. আলাল মিয়ার পুত্র। সে জয়দেবপুর থানা এলাকার মনিপুর গ্রামের মকবুল হাসান এর বাড়িতে ভাড়া থাকত। এ ঘটনায় শ্রীপুর থানায় একটি মামলা হলে চাঞ্চল্যকর ধর্ষণ মামলাটি গাজীপুর ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার লে. কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল মামুন মামলাটির তদন্ত শুরু করেন।

র‌্যাব জানায়, সোহাগ মিয়া পেশায় একজন বাস ড্রাইভার। সে ও তার অন্যান্য সহযোগী ৩ বন্ধু মিলে গত ৫ সেপ্টেম্বর রাতে ভিকটিমকে (২৩) ময়মনসিংহ জেলার ভালুকা থানার ভরাডোবা এলাকা হতে জোরপূর্বক অপহরণ করে গাজীপুর জেলার শ্রীপুর থানার এমসি বাজার এলাকায় নিয়ে একটি ঘরের ভিতরে আটক রাখে। পরবর্তীতে ভিকটিমকে কোকাকোলার সাথে নেশা জাতীয় দ্রব্য সেবন করিয়ে অজ্ঞান করে ৩ বন্ধু মিলে সারারাত পালাক্রমে ধর্ষণ করে ও ধর্ষণের ভিডিও ধারণ করে। পরদিন সকালে ধর্ষকরা ভিকটিমকে অজ্ঞান অবস্থায় ঘরে তালাবদ্ধ করে চলে যায়। পরে স্থানীয়রা মুমূর্ষ অবস্থায় ভিকটিমকে উদ্ধার করে। পরে সোহাগ অর্থের বিনিময়ে ধর্ষণের ধারণকৃত পর্ণোগ্রাফি ভিডিও বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়।

র‌্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে সোহাগ ঘটনার বিষয়ে স্বীকার করে। ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি সোহাগকে গ্রেফতারের বিষয়ে র‌্যাব-১ গাজীপুরের পোড়াবাড়ী ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানান।

আমিনুল/শিইসি

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: