প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

পরিবহন শ্রমিককে পুলিশের মারধরের জের, প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ

   
প্রকাশিত: ৬:৫৫ অপরাহ্ণ, ২৭ জানুয়ারি ২০২১

মনিরুল ইসলাম, মৌলভীবাজার থেকে: পরিবহন শ্রমিককে পুলিশের মারধরের জেরে মৌলভীবাজারে সড়ক অবরোধ করেছে পরিবহন শ্রমিকরা। অবরোধের কারণে রাস্তার উভয় পাশে কয়েকশ যানবাহন আটকা পড়ে। পরে পুলিশ সুপারের আশ্বাসে অবরোধ তুলে নিলে মান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

জানা যায়, বুধবার (২৭ জানুয়ারি) শহরের ঢাকা সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়কের মাছের আড়ত এলাকায় একটি পিকআপভ্যান রাস্তার পাশে পার্কিং নিয়ে পুলিশের সঙ্গে কথা কাটাকাটির জের ধরে পরিবহন শ্রমিকদের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়।

পরিবহন শ্রমিকরা বলেন, পুলিশের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর (টিআই) মো. উল্লাহ পিকআপভ্যান চালক মবু মিয়াকে প্রকাশ্যে মারধর করেন। মারামারির এক পর্যায়ে অশালীন ভাষায় গালিগালাজ করেন। মূলত এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে শ্রমিকরা সড়ক অবরোধ করে রাখে।

পিকআপভ্যান চালক কামরুল ইসলাম জানান, আড়তের সামনে টমটম গাড়ি থেকে মাল ওঠানামা করা হয়। তখন মাল লোড করার সময় অনেক যানজটের সৃষ্টি হয়। পিকআপভ্যান চালক মহিব উল্লাহ আড়তের পাশে গাড়ি নিয়ে দাঁড়িয়ে ছিলেন। তখন ট্রাফিক সার্জন মোহাম্মদ উল্লাহ ড্রাইভারকে অবৈধ পার্কিংয়ে গাড়ি রেখেছেন বলে মারধর ও অকথ্য ভাষায় গালাগলি করেন। তখন কিছু শ্রমিক গাড়ি দিয়ে সড়ক বন্ধ করে দেন। পরবর্তীতে ট্রাক ও পিকআপ চালকরা সবাই জড়ো হন।

মৌলভীবাজার জেলা ট্রাক-লরি-কাভার্ডভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আজাদুর রহমান জাগো নিউজকে বলেন, পুলিশ সুপার এসে বিচারের আশ্বাস দেয়ায় শ্রমিকরা অবরোধ তুলে নেন।এ সময় শ্রমিকদের পক্ষে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন মৌলভীবাজার জেলা মিনি ট্রাক মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সভাপতি আব্দুল ওয়াদুদসহ আরও কয়েকজন শ্রমিক নেতা।

মৌলভীবাজার পুলিশ সুপার জানান, আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারির পর থেকে শহরের গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে কোনো প্রকার যানবাহন পার্কিং করে যানজট সৃষ্টি করা যাবে না। কাগজপত্র ঠিক নেই, এমন যানবাহন চলাচল করতে দেয়া হবে না।

এমআর/এনই

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: