১৪ ফেব্রুয়ারি

ভালোবাসার দিন আজ

   
প্রকাশিত: ৯:০৩ পূর্বাহ্ণ, ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১

‘ভালোবাসাটা হচ্ছে একধরনের প্রতিজ্ঞা। ভালোবাসাবাসির জন্যে অনন্তকালের প্রয়োজন নেই, একটি মুহূর্তই যথেষ্ট। ভালোবাসা দিয়ে মরুভুমিতে ফুল ফোটানো যায়। ভালোবাসা হচ্ছে জীবনের বন্ধু। ভালোবাসার কোন অর্থ বা পরিমাণ নেই।’ সত্যিই তাই; ভালোবাসা রঙিন প্রজাপতির মতো উড়ে উড়ে ছন্দ তুলে যায়। কিন্তু চলে যাওয়া মাত্রই সেখানে এক বিবর্ন বিষণ্নতা নেমে আসে। আজ শুধু ভালোবাসার দিন। আজ রবিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি)। বিশ্ব ভালবাসা দিবস। ভ্যালেন্টাইন্স ডে। করোনা মহামারির আতঙ্ক, স্বজন হারানোর বেদনা, জীবিকার অনিশ্চয়তা—সব কিছু পেছনে ফেলে মানুষ যখন আবার স্বাভাবিক জীবনে ফিরছে, তখন ধরণিতেও ‘বসন্ত এসে গেছে’। বিবর্ণ প্রকৃতিতে জেগে উঠছে নতুন জীবনের ঢেউ।

‘আমার জীবনে তুমি বাঁচো ওগো বাঁচো/ তোমার কামনা আমার চিত্ত দিয়ে যাঁচো…’ অথবা ‘তোমরা যে বল ভালোবাসা ভালোবাসা/সখী ভালোবাসা কারে কয়…’। কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর তো এভাবেই বলে গেছেন। বসন্ত বাতাসে হৃদয়ের মিথস্ক্রিয়ায় সারা বিশ্বের প্রেমপিয়াসী যুগলরা বছরের একটি দিনকে বেছে নেয় ভালোবাসার কথা বলতে। ভালোবাসার দিনটিতেই বেছে নেয় মনের গহিনের কথকতার কলি ফোটাতে।

দিনটিকে বিশ্ব ব্যাপী ভালোবাসা দিবস হিসেবে পালন করা হয়। প্রেমিক-প্রেমিকা, বন্ধু-বান্ধব, স্বামী-স্ত্রী, মা-সন্তান, ছাত্র-শিক্ষক সহ বিভিন্ন বন্ধনে আবদ্ধ মানুষেরা এই দিনে একে অন্যকে তাদের ভালোবাসা জানায়। বর্তমানে সমগ্র বিশ্বে এই দিনটিকে খুবই ঘটা করে আনন্দ উৎসবের মধ্য দিয়ে পালন করা হয়। এই দিনে পার্ক ও বিনোদন কেন্দ্রগুলো ভালোবাসার মানুষদের দ্বারা পরিপূর্ণ থাকে। ভালোবাসা দিবসের এই দিনে প্রিয়জনকে সবাই ফুল ও বিভিন্ন সামগ্রী উপহার দিয়ে থাকে।

ইতিহাসের তথ্য অনুযায়ী, খ্রিষ্টান পাদরি ও চিকিৎসক ফাদার সেন্ট ভ্যালেন্টাইনের নামানুসারে দিনটির নাম ‘ভ্যালেন্টাইনস ডে’ করা হয়। অনেকের মতে ভ্যালেন্টাইনের নামানুসারেই পোপ প্রথম জুলিয়াস ৪৯৬ খ্রিষ্টাব্দের ১৪ই ফেব্রুয়ারিকে ভ্যালেন্টাইনস ডে হিসেবে ঘোষণা করেন। প্রাপ্ত তথ্য থেকে জানা যায়, ২৭০ খ্রিষ্টাব্দের ১৪ই ফেব্রুয়ারি খ্রিষ্টানবিরোধী রোমান সম্রাট গথিকাস আহত সেনাদের চিকিৎসার অপরাধে সেন্ট ভ্যালেন্টাইনকে মৃত্যুদণ্ড দেন। মৃত্যুর আগে ফাদার ভ্যালেন্টাইন তার আদরের একমাত্র মেয়েকে একটি চিঠি লিখেন, যেখানে তিনি নিজের নাম সই করে লিখেছিলেন ‘ফ্রম ইওর ভ্যালেন্টাইন’। সেন্ট ভ্যালেন্টাইনের মেয়ে এবং তার প্রেমিক মিলে পরের বছর থেকে বাবার মৃত্যুর দিনটিকে ‘ভ্যালেন্টাইনস ডে’ হিসেবে পালন করা শুরু করেন। যুদ্ধে আহত মানুষকে সেবার অপরাধে মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিত সেন্ট ভ্যালেন্টাইনকে ভালোবেসে দিনটি বিশেষভাবে পালন করার রীতি কালক্রমে সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে।

একই বিষয়ে ইতিহাসবিদদের মধ্যে কিছুটা ভিন্ন মতও আছে। অনেকের মতে খ্রিষ্টান ধর্ম প্রচারের অভিযোগে রোমান সম্রাট দ্বিতীয় ক্রাডিয়াস খ্রিষ্টান পাদরি ও চিকিৎসক সেন্ট ভ্যালেন্টাইনকে বন্দি করেন। কারণ, তখন রোমান সাম্রাজ্যে খ্রিষ্টান ধর্ম প্রচার নিষিদ্ধ ছিল। বন্দি অবস্থায় ভ্যালেন্টাইন জনৈক কারারক্ষীর দৃষ্টিহীন মেয়েকে চিকিৎসার মাধ্যমে সুস্থ করে তোলেন। এতে সেন্ট ভ্যালেন্টাইনের জনপ্রিয়তার প্রতি ঈর্ষান্বিত হয়ে রাজা তাকে মৃত্যুদণ্ড দেন। সেই দিনটি ছিল ১৪ই ফেব্রুয়ারি। একসময় ৪৯৬ খ্রিষ্টাব্দে পোপ সেন্ট জেলাসিউও প্রথম জুলিয়াস ভ্যালেন্টাইনস স্মরণে ১৪ই ফেব্রুয়ারিকে ভ্যালেন্টাইনস দিবস ঘোষণা করেন। কালক্রমে এটি সমগ্র ইউরোপ এবং পরবর্তীতে সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে।

বৈশ্বিক মহামারি করোনায় বিপর্যস্ত সারা বিশ্ব। তছনছ হয়ে গেছে সব কিছু। দেশেও সাধারণ ছুটি ঘোষণা, অর্থনীতি লণ্ডভণ্ড হয়ে যাওয়ার প্রেক্ষাপটে অনেক উত্সব আয়োজন বাতিল করা হয়। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এখনো খোলা যায়নি। পিছিয়ে গেছে বইমেলা। তাই এবার বসন্ত এসেছে ছন্দহীন, বর্ণহীন এক দুঃসময় ও ঘুরে দাঁড়ানোর অভাবনীয় বৈশ্বিক প্রচেষ্টার সন্ধিক্ষণে। অবশ্য আবার সুবাতাস বইতে শুরু করেছে। দেশে এখন চলছে করোনার টিকাদান কর্মসূচি। মহামারি থেকে সুরক্ষার আশা জেগেছে মানুষের মনে।

বসন্তের প্রথম দিনে আজ নানা আয়োজনে আলোড়িত হবে রাজধানী ঢাকা। স্বাস্থ্যবিধি মেনে উৎসব আয়োজনে যোগ দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন উদ্যোক্তারা। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইনস্টিটিউটের বকুলতলার পরিবর্তে এবার বসন্ত উৎসবের আয়োজন করা হয়েছে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের মুক্তমঞ্চ। আয়োজন রয়েছে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিরও। এটি বসছে বিকেল ৪টায় একাডেমির নন্দন মঞ্চে। এ ছাড়া তরুণ-তরুণীদের উপস্থিতিতে নগরীর বিভিন্ন উদ্যান, পার্ক, খাবারের দোকান মুখর হয়ে উঠবে।

নাঈম/নিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: