প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়াসহ কয়েকদফা দাবিতে বিক্ষোভ

   
প্রকাশিত: ৭:৫৬ অপরাহ্ণ, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১

আবুল হোসেন, সিলেট থেকে: শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়াসহ কয়েকদফা দাবিতে বৃহস্পতিবার সিলেট নগরের চৌহাট্টায় সড়ক অবরোধ করেন বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা। অবরোধের কারণে সড়কজুড়ে যানজটের সৃষ্টি হয়। প্রায় দেড় ঘন্টা পর প্রশাসনের আশ্বাসে অবরোধ তুলে নেন তারা। শিক্ষার্থীরা সড়ক ছেড়ে দেওয়ার পর এই সড়ক দিয়ে আবার যান চলাচল শুরু হয়।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় নগরীর চৌহাট্টা এলাকার কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারের সাধারণ শিক্ষার্থীদের ব্যানারে মানববন্ধন করা হয়। এই মানববন্ধনের পর চৌহাট্টা জিন্দাবাজার সড়ক অবরোধ করেন শিক্ষার্থীরা। এসময় দ্রুত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার দাবি জানান তারা। সড়ক অবরোধ করে শিক্ষাথৃীরা তাদের দাবির পক্ষে বিভিন্ন শ্লো্গান দিতে থাকেন।

বেলা ১টায় সিলেট মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার আজবাহার আলী শেখসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছেন এবং শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলে তাদের শান্ত করেন। পরে বেলা দেড়টার সময় শিক্ষার্থীরা অবরোধ তুলে নেন।

অবরোধে সিলেটের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৫ শতাধিক শিক্ষার্থী অংশ নেন। শিক্ষার্থীরা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে চলমান মাস্টার্সসহ সকল পরীক্ষার স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার এবং স্বাস্থ্যসুরক্ষা মেনে দ্রুত সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও ছাত্রাবাস খুলে দেয়ার জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানান।

শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করে বলেন, সারা দেশে বিভিন্ন রাজনৈতিক সভা থেকে শুরু করে খেলাধুলা সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড অনুষ্ঠিত হচ্ছে সেখানে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রেখে দেশের শিক্ষাখাতকে ধ্বংস করার পায়তারা হচ্ছে। বক্তারা অবিলম্বে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলে দেয়া না হলে সারা দেশের শিক্ষার্থীদের নিয়ে কঠোর আন্দোলনের হুমকি দেন।

এদিকে, কর্মসূচি প্রত্যাহারের পর তাদের দাবিসংবলিত একটি স্মারকলিপি জেলা প্রশাসকের কাছে দেবেন জানান শিক্ষার্থীরা। দা্বি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোল চালিয়ে যাওয়ারও ঘোষণা দেন তারা।

প্রসঙ্গত, করোনা পরিস্থিতির কারণে গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। সম্প্রতি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা শুরু হলেও তা স্থগিত করে দেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

এআইআ/এইচি

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: