প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

বাড়িওয়ালার স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়া, গণপিটুনি খেয়ে কারাগারে বাবা-মা

   
প্রকাশিত: ২:২১ অপরাহ্ণ, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১

ছবি: প্রতীকী

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় বখাটে ছেলের পরকীয়ার অপরাধে বাবা-মা ও ছোটবোনকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে দিয়েছেন এলাকাবাসী। বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) রাতে ফতুল্লার মুসলিমনগর নয়াবাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। গ্রেফতারকৃতরা হলেন খাদেমুল ইসলাম (২০), তার বাবা আবেদুল ইসলাম (৪২), মা খাজিদা বেগম (৪০) ও ছোট বোন মুক্তা বেগম (১৯)।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি আসলাম হোসেন মামলার বরাত দিয়ে গণমাধ্যমকে জানান, নয়াবাজার এলাকার মামুন নামে এক বাড়িওয়ালার বাড়িতে ভাড়া থাকতেন খাদেমুল ইসলাম ও তার বাবা-মা, বোন ও তার জামাই। ৫/৬ বছর যাবত ওই বাড়িতে থাকায় বাড়িওয়ালার স্ত্রীর সঙ্গে খাদেমুল ইসলামের পরকীয়া সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ৩/৪ মাস পূর্বে বাড়িওয়ালা বিষয়টি বুঝতে পেরে খাদেমুল ও তার বাবা মা এবং বোনকে ঘর ছেড়ে দিতে বলেন। এতে তারা ওই বাড়ি ছেড়ে পাশের এক বাড়িতে বাসা ভাড়া নেন। তিনি আরও জানান, বাড়িওয়ালার স্ত্রী ও তার আড়াই বছরের শিশুকে নিয়ে মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) রাতে পালিয়ে যায় প্রেমিক খাদেমুল। বিষয়টি খাদেমুলের মা-বাবা ও বোনকে জানান ওই বাড়িওয়ালা মামুন। খাদেমুলের পরিবার ঘটনা জেনেও তা অস্বীকার করে পরদিন বুধবার রাতে সবাই পালানোর চেষ্টা করেন। এ সময় এলাকাবাসী তাদের আটকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তারা একেক সময় একেক কথা বলায় মারধর করে পুলিশকে খবর দেয়।

পরে তাদের দেওয়া তথ্যমতে খাদেমুলকে ফতুল্লার বক্তাবলী থেকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় উদ্ধার করা হয় মামুনের স্ত্রী ও শিশুকে। এ ঘটনায় বাড়িওয়ালা মামুন ওই পরিবারের ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। যার প্রেক্ষিতে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালত তাদের কারাগারে পাঠায় পুলিশ।

নাঈম/নিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: