প্রচ্ছদ / রাজনীতি / বিস্তারিত

আওয়ামী লীগ কার্যালয় ছাড়লেন কাদের মির্জা

   
প্রকাশিত: ৫:০৫ অপরাহ্ণ, ২ মার্চ ২০২১

ছবি: সংগৃহীত

নোয়াখালী কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয় ছেড়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই, আলোচিত মেয়র আবদুল কাদের মির্জা। বসুরহাট পৌরসভার মেয়র ছাড়াও তিনি নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য। সোমবার (১মার্চ) দুপুরে বসুরহাট রূপালী চত্বরে উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের মালপত্র তিনি পাশের একটি ভবনে নিজের ব্যক্তিগত কার্যালয়ে নিয়ে গেছেন।

কার্যালয় ছেড়ে দেওয়া প্রসঙ্গে আবদুল কাদের মির্জা বলেন, ওই কার্যালয়টি ঘরের মালিকদের বুঝিয়ে দিয়েছি। আজ (সোমবার) থেকে আমি বসুরহাট রূপালী চত্বরে আলেয়া টাওয়ারে ব্যক্তিগত কার্যালয়ে বসব। তাই আমার কেনা মালপত্র নিয়ে এসেছি। তিনি আরো বলেন, ‘অপরাজনীতির সঙ্গে আমি নেই। কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয় কোথায় হবে, তা একমাত্র ওবায়দুল কাদের জানেন।’

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরনবী চৌধুরী বলেন, আমি এ বিষয়ে কিছুই জানি না। এই মালপত্র পদ্মা লাইফ ইনস্যুরেন্স থেকে উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের নামে কেনা হয়েছে। উনি (কাদের মির্জা) আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের মালপত্র ব্যক্তিগত কার্যালয়ে নিয়ে যেতে পারেন না।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা বিগত দুই মাস ধরে দলের কেন্দ্র থেকে জেলা-উপজেলা পর্যায়ের নেতাদের সমালোচনা করে আসছিলেন। গত ১৯ ফেব্রুয়ারি মেয়র কাদের মির্জা ও তার প্রতিপক্ষ সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল গ্রুপের সংঘর্ষে সাংবাদিক মুজাক্কির খুন হওয়ার ঘটনাসহ আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটে। এসব ঘটনার কারণে কেন্দ্র থেকে নির্দেশনা আসায় নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগ কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সকল কার্যক্রম পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত স্থগিত করে দেয়।

নাঈম/নিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: