প্রচ্ছদ / সারাবিশ্ব / বিস্তারিত

ভারতের শিকারপুর থানা এলাকার আম্বেদকরনগর কলোনীতে

অবৈধ সম্পর্কের সন্দেহ, স্ত্রী ও দুই মেয়েকে খুন

   
প্রকাশিত: ৮:০৮ অপরাহ্ণ, ৩ মার্চ ২০২১

সন্দেহজনক অবৈধ সম্পর্কের জের ধরে নিজের স্ত্রী ও দুই মেয়েকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করেছে এক ব্যাক্তি।

ভারতীয় গণমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস এর খবর অনুযায়ী হত্যাকারী ব্যাক্তির বয়স ৬০। স্ত্রী ও দুই কন্যা মারা যাওয়ার সময় তার তৃতীয় কন্যা, যাকেও আক্রমণ করা হয়েছিল ভাগ্যক্রমে তিনি বেঁচে গিয়েছিলেন। তাকে (তৃতীয় কণ্যা) চিকিৎসার জন্য নিকটস্থ মেরাট জেলাতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

ঘটনা ভারতের শিকারপুর থানা এলাকার আম্বেদকরনগর কলোনীতে।

বুলান্দশহরের সিনিয়র পুলিশ সুপার সন্তোষ কুমার সিং জানিয়েছেন, মারা যাওয়া স্ত্রীর বয়স ৫০ বছর। এবং অন্য যে দুই কণ্যা মারা গেছে তাদের বয়স ২০ এবং ১৫। আর যে মেয়েটি ভাগ্যক্রমে বেচেঁ গেছে তার বয়স ১৮।

অভিযুক্ত খুনি পলাতক রয়েছে। ইতিমধ্যে থানায় এফআইআর করেছে অভিযুক্তের ২২ বছর বয়সই ছেলে।

ছেলের দেওয়া অভিযোগের বরাত দিয়ে এসএসপি সিং বলেন, “লোকটি তার স্ত্রী ও মেয়েদের বাইরের লোকের সাথে অবৈধ সম্পর্কের জন্য সন্দেহ করেছিল। সে প্রায়শই বাড়িতে ঝগড়া করত। গত রাতেও তাদের বাড়িতে ঝগড়া হয়েছিল,”।

তিনি আরও বলেন, “রাতে তার স্ত্রী ও কন্যারা ঘুমিয়ে পড়ার পরে লোকটি তাদের মাথায় হাতুড়ি দিয়ে আঘাত করে। স্ত্রী ও দুই কন্যা মারা যায়, এবং তৃতীয়জনকে চিকিৎসার জন্য মীরাতে রেফার করা হয়েছে।”

তিনি জানান, আসামি পলাতক রয়েছে এবং তাকে সন্ধানের জন্য চারটি পুলিশ দল গঠন করা হয়েছে।

এআইআ/এইচি

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: