>
   
প্রচ্ছদ / শিক্ষা / বিস্তারিত

মাদ্রাসা খোলা রাখলেই ব্যবস্থা: নওফেল

   
প্রকাশিত: ৮:৫০ অপরাহ্ণ, ৮ এপ্রিল ২০২১

ছবি: সংগৃহীত

মাদ্রাসাগুলোতে আবাসিক-অনাবাসিক যেগুলো আছে তা বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেওয়া আছে। এ নির্দেশনা উপেক্ষা করে যারা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা রাখবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। করোনা ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ প্রদান কার্যক্রম বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) থেকে শুরু হয়েছে চট্টগ্রামে। শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল চমেক হাসপাতালে নিজে এই ডোজ নিয়েই দ্বিতীয় ডোজ প্রদান কার্যক্রম উদ্বোধন করেন। চট্টগ্রামে করোনার প্রথম ডোজ প্রদান কার্যক্রমও তিনি উদ্বোধন করেছিলেন।

বৃহস্পতিবার করোনার দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণ শেষে নওফেল বলেন, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিদ্ধান্ত অমান্য করে যারা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো খোলা রাখবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আজকে থেকে বিষয়টি মনিটরং করা হবে।

তিনি বলেন, এতিমদের যাওয়ার কোনো জায়গা না থাকার কারণে এতিমখানাগুলো খোলা থাকবে। তবে কওমি মাদরাসাগুলোতে আবাসিক-অনাবাসিক যেগুলো আছে তা বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেওয়া আছে।

চট্টগ্রামে মজুদ থাকা ৫০ হাজার ডোজ নিয়ে বৃহস্পতিবার শুরু হলো করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে দ্বিতীয় পর্যায়ের টিকাদান কর্মসূচি। শুক্রবার চট্টগ্রামে আরও ৩ লাখ ৬ হাজার ডোজ টিকা ঢাকা থেকে চট্টগ্রামে আনার কথা রয়েছে।

শিক্ষা উপমন্ত্রী জেনারেল হাসপাতালে আরও ৮টি আইসিইউর উদ্বোধন করেন। এ উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে নওফেল বলেন, সারা দেশের মধ্যে চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতাল একটি দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে। যে শূন্য থেকে কিভাবে একটি পূর্ণাঙ্গ কোভিড হাসপাতালে রূপ নিয়েছে। এখন এ হাসপাতালে আইসিইউ সংখ্যা ১৮টি। পর্যায়ক্রমে এ হাসপাতালকে কিভাবে মেডিকেল কলেজে রূপ দেয়া যায় সেই চেষ্টা করব।

কাওসার/নিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: