প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

সোলায়মান বাবু

সরিষাবাড়ী প্রতিনিধি

সরিষাবাড়ীতে বালুদস্যুদের তোপের মুখে ভূমি অফিসার

   
প্রকাশিত: ৭:৫১ অপরাহ্ণ, ১৯ এপ্রিল ২০২১

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে বিভিন্ন নদীর তলদেশ এবং যমুনা নদীর জেগে ওঠা চরের বালু ও মাটি অবৈধভাবে বিক্রি করে আসছিল বালুদস্যুরা। এলাকার জনগনের অভিযোগের ভিত্তিতে স্থানীয় প্রশাসন বিভিন্ন স্থানে ভ্রাম্যমান আদালত এর মাধ্যমে অভিযান চালিয়ে ড্রেজার মেশিন উচ্ছেদ করে পুড়িয়ে দেয়।

গত ৩ দিনে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফাইজুল ওয়াসিমা নাহাদের নেতৃত্বে একদল পুলিশ অভিযান চালিয়ে নদী থেকে অবৈধ ভাবে বালি উত্তোলন করায় ৯টি ড্রেজার এবং ব্যবহৃত পাইপ পুড়িয়ে দিয়েছে বলে জানা গেছে।

আজ সোমবার (১৯ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ১১টায় উপজেলার ৪নং আওনা ইউনিয়নের পুরাতন জগন্নাথগঞ্জ ঘাটের পশ্চিমে জেটি ঘাটের সন্নিকটের নদীতে ঝটিকা অভিযান চালিয়ে অবৈধ ভাবে বালি উত্তোলনের ৬টি ড্রেজার মেশিন পুড়িয়ে দেয়ায় সংঘবদ্ধ বালুদস্যুরা ক্ষিপ্ত হয়ে উঠার ঘটনা ঘটে।

তোপের মুখে পড়েন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। বালুদস্যুরা মোবাইল কোর্ট পরিচালনায় বাধা দেয় এবং ৪ কর্মচারীকে লাঞ্ছিত করে বলে অভিযোগ পাওয়া যায়। এ সময় পুলিশ শাহজামাল নামের একজনকে আটক করে বলে স্থানীয়রা জানায়। ড্রেজার মেশিন উচ্ছেদে বালু দস্যুদের বাধা প্রদানের ঘটনায় উদ্বিগ্ন এলাকাবাসী।

মোবাইল কোর্ট পরিচালনার সময় বালু উত্তোলনকারী সিন্ডিকেট সদস্য আওনা ইউনিয়নের আফজাল মন্ডলের ছেলে শাহজামাল (৩৫)এর নেতৃত্বে শতাধিক স্থানীয় লোকজন দিয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) অফিসের ড্রাইভার লিকসন মিয়া, আওনা ভুমি অফিসের অফিস সহায়ক শফিকুল ইসলাম, পিংনা ইউনিয়ন ভুমি অফিসের অফিস সহায়ক শাহীন মিয়া ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) অফিসের ঝাড়–দার সাজু বাশফোর কে শার্টের কলার ধরে টানা হেঁচড়া ও সরকারী গাড়ী ভাংচুর করার চেষ্টা করে। পরে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) ও ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ফাইযুল ওয়াসিমা নাহত এর নির্দেশে সরিষাবাড়ী থানার এস আই আরিফুল ইসলামসহ সঙ্গীয় পুলিশ সদস্যরা জগন্নাথগঞ্জ জেটিঘাট এলাকা থেকে শাহজামাল (৩৫)কে সরকারী কর্মচারী’র জনস্বার্থে কাজে বাধা দেয়ার অপরাধে আটকের নির্দেশ প্রদান করেন।

পুলিশ শাহজামালকে সরিষাবাড়ী থানায় নিয়ে আসে। এরপর বালু উত্তোলনকারী সিন্ডিকেট সদস্য শাহজামাল তার অপরাধের জন্য নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করে এবং ভবিষ্যতে এমন অপরাধ করবে না মর্মে মুচলেকা’র প্রদান করলে পৌর কাউন্সিলর সাখাওয়াত হোসেন মুকুল ও উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সহ সভাপতি আনোয়ার হোসেন রাঙ্গা’র জিম্মায় মুক্তি দেয়া হয়েছে বলে জানাগেছে।
ভ্রাম্যমান আদালত স্থল গ্রামের ফরহাদ হোসেন, দৌলতপুর গ্রামের ছাইফুল ইসলাম, জগন্নাথগঞ্জ ঘাটের শাহ জামাল, কুলপাল চরের গোলাপ হোসেন ও হানিফ মিয়ার ড্রেজার মেশিন এবং ব্যবহৃত পাইপ উচ্ছেদ করে পুড়িয়ে দেয়। উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্টে্রট ফাইজুল ওয়াসিমা নাহাদ এর নেতৃত্বে একদল পুলিশ গত ১৬ এপ্রিল ভাটারা ইউনিয়নের কৃষ্টপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে ২টি ড্রেজার এবং ব্যবহৃত পাইপ পুড়িয়ে দিয়েছে বলে জানাগেছে। পরদিন ১৭ এপ্রিল পোগলদিঘা ইউনিয়নের বয়ড়া বাজারের দক্ষিণ পার্শ্বে অভিযান চালিয়ে ১টি ড্রেজার এবং ব্যবহৃত পাইপ পুড়িয়ে দেয়।

উল্লেখ্য, স্থানীয় প্রশাসনের নাকের ডগায় স্থানীয় প্রভাবশালী মহল কোনো ধরণের ইজারা ছাড়াই দীর্ঘদিন ধরে অবৈধ ভাবে বালু ও মাটি বিক্রি করে কোটি টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। সঙ্ঘবদ্ধ প্রভাবশালী চক্র উপজেলার বিভিন্ন স্থানের নদীর চর কেটে ট্রাকে বালু ও মাটি তুলে বিক্রি করছে। উত্তোলিত বালুগুলো বিভিন্ন ব্যাক্তি ও প্রতিষ্ঠানের কাছে বিক্রি করা হয়। আবার তারা সেই মাটি বিক্রি করছে বাড়ির ভিটা, পুকুর, ডোবা ভরাটের জন্য। এজন্য প্রতিদিন ভেকু মেশিনেও শতাধিক ট্রাক ব্যবহার করা হচ্ছে। বন্যা কবলিত এলাকা হিসেবে উপজেলার বিভিন্ন এলাকা নদী ভাঙ্গনের কারনে প্রায় কয়েক শতাধিক পরিবারের ঘর-বাড়ি পানির নিচে তলিয়ে যায়। ঝুকিঁপূর্ন এলাকা হওয়া সত্ত্বেও নদী হতে অবাধে বালু বিক্রি করা পরিবেশ ভারসাম্য হারাচ্ছে বলে পরিবেশ বিশেষজ্ঞরা জানান। এ ঘটনায় উদ্বিগ্ন এলাকাবাসী কঠোর অবস্থানে থেকে বালুদস্যুদের প্রতিহত করে পরিবেশের ভারসাম্য ফিরিয়ে আনার দাবী জানিয়েছেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফাইযুল ওয়াসিমা নাহাদ জানান, যমুনা নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকালে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে ৬টি ড্রেজার মেশিন এবং পাইপ ধ্বংস করা হয়। ওই মোবাইল কোর্ট পরিচালনায় বালু উত্তোলনকারী শাহজামাল (৩৫) কতৃর্ক সরকারী কর্মচারী’র জনস্বার্থে কাজে বাধা দেয়ার অপরাধে তাকে আটক করে থানা পুলিশে সোপর্দ করা হয়। বালু উত্তোলনকারী শাহজামাল তার অপরাধের জন্য নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করে এবং ভবিষ্যতে এমন অপরাধ করবে না মর্মে মুচলেকা’র নিয়ে তাকে মুক্তি দেয়া হয়েছে।

শাওন/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: