প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

আনু হাসান

গাজিপুর প্রতিনিধি

টঙ্গীতে যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে আদালতে চাঁদাবাজির মামলা

   
প্রকাশিত: ৭:৫১ অপরাহ্ণ, ১৯ এপ্রিল ২০২১

গাজীপুরের টঙ্গীতে ডিস ব্যবসাকে কেন্দ্র করে চাঁদবাজি, হামলা ও ভাংচুরের ঘটনায় মোস্তফা মিয়া নামক কথিত এক যুবলীগ নেতার নামে গাজীপুর বিজ্ঞ আদালতে চাঁদাবাজির মামলা হয়েছে।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারী (বুধবার) রাত আনুমানিক ৮ টার সময় সাতাইশ খরতৈল এলাকায় জে এম এস ক্যাবল নেটওয়ার্ক অফিসের সামনে স্থানীয় কথিত যুবলীগ নেতা মোস্তফা মিয়া ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা মো. মনির হোসেনের উপর চাদার দাবিতে হঠাৎ আতর্কিত হামলা চালায়।

স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা ও অভিযোগকারী মো. মনির হোসেন জানান, গাজীপুরা সাতাইশ খরতৈল এলাকায় জে এম এস ক্যাবল নেটওয়ার্ক নামে দীর্ঘ দিন যাবৎ ট্রেড লাইসেন্স করে স্যাটেলাইট ক্যাবল টিভি (ডিস) ব্যবসা পরিচালনা করে আসছি। বেশ কিছুদিন যাবৎ ধরে রুবেল, জাহাঙ্গীর, মোস্তফা মিয়া, মাহফুজ, আশরাফুল গ্যাং রা আমার এই ব্যবসা কে কেন্দ্র করে বিভিন্ন পন্থায় চাঁদাদাবি ও দখল করার পায়তারা করে আসছে। চাঁদা না দেওয়ায় ও ডিস ব্যবসা দখল করার উদ্দেশ্যে জে এম এস নেটওয়ার্ক (ডিস) অফিসে এসে দেশিয় অস্ত্রসহ ব্যাপক ভাংচুর করে ড্রয়ার থেকে ১৫০০০০ টাকা ও একটি ল্যাপটপসহ অনেক গুরুত্বপূর্ণ মালামাল নিয়ে যায়। ভাংচুর ও লুটপাটে আমার প্রায় ৫ লক্ষাধিক সমপরিমাণ টাকার ক্ষতিসাধন হয়।

এ সময় অফিসে থাকা কর্মচারীদের মারধর করে ও এলাকায় বোমা ফাটিয়ে এাসের রাজত্ব সৃষ্টি করে এবং হুশিয়ারি দিয়ে যায় এলাকায় ব্যবসা করতে হলে প্রতি মাসে আসামিদের ৫০০০০ (পঞ্চাশ হাজার) টাকা চাঁদা দিতে হবে।

চাঁদা না দিলে অভিযোগকারী মনিরকে বিভিন্ন ভয় ভীতি, হুমকি দিয়ে প্রাণে মেরে ফেলে লাশ তুরাগ নদীতে ভাসিয়ে দিয়ে উক্ত ডিস ব্যবসা দখল করে নিবে বলে চলে যায়। আমি স্থানীয়ভাবে ও টঙ্গী পশ্চিম থানায় মামলা দায়ের ব্যর্থ হলে বিজ্ঞ আদালতে মামলা দায়ের করি।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত যুবলীগ নেতা মোস্তফা হোসেনের সাথে একাধিক বার মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয় নি।

এ বিষয়ে টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহ আলম জানান, বিজ্ঞ আদালতের নির্দেশে বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। তদন্ত সাপেক্ষে প্রতিবেদন দাখিল করা হবে।

শাওন/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: