প্রচ্ছদ / সারাবিশ্ব / বিস্তারিত

গাজায় ইসরায়েলি হামলা বন্ধ করতে ‘এক ফোনকলই’ যথেষ্ট!

   
প্রকাশিত: ১:০৭ অপরাহ্ণ, ১৮ মে ২০২১

ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলের চলমান একের পর এক রক্তক্ষয়ী হামলা মাত্র ‘একটি ফোন কলেই’ বন্ধ করতে পারেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এমনটাই এক টুইটের মাধ্যমে দাবি করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেস সদস্য রো খান্না। খবর- মিডলইস্ট আইয়ের। এর আগে এমএসএনবিসিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে স্পষ্টভাবে একটি অস্ত্রবিরতি না চাওয়ায় বাইডেন প্রশাসনকে কঠোর তিরস্কার করেছেন খান্না। তিনি বলেন, যদি অন্তর্বর্তী প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুকে আজ ফোন দেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং বলেন, অস্ত্রবিরতিতে আসতে হবে। তখনই অস্ত্রবিরতি হয়ে যাবে।

এদিকে মানবাধিকার গোষ্ঠীগুলোর অব্যাহত চাপের মুখে গাজায় সহিংসতা বন্ধে সমর্থন দেওয়ার কথা জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

সোমবার (১৭ মে) এক বিবৃতিতে হোয়াইট হাউস জানিয়েছে, হামাস-ইসরায়েলের মধ্যে অস্ত্রবিরতিতে সমর্থন ব্যক্ত করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। তিনি ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রীকে জানিয়েছেন যে, দুই পক্ষের মধ্যে সংঘাত বন্ধে মিসরসহ অন্যান্য অংশীদার দেশের সঙ্গে কাজ করছে যুক্তরাষ্ট্র। (সূত্র: আল-জাজিরা)

যুদ্ধবিরতির পক্ষে বাইডেন এখন তার সমর্থন ব্যক্ত করলেও রোববার ইসরায়েল-ফিলিস্তিনের মধ্যে সংঘাত বন্ধে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের আহ্বান সংবলিত বিবৃতি আটকে দেয় যুক্তরাষ্ট্র।

ইসরায়েলের সবচেয়ে ঘনিষ্ঠ মিত্র যুক্তরাষ্ট্রের আপত্তির কারণে নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠক থেকে কোনো ফল আসেনি। এতে হামাস-ইসরায়েল সংঘাত দ্বিতীয় সপ্তাহে গড়ালেও এখন পর্যন্ত তা বন্ধের কোনো লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না।

গাজায় উপত্যকায় ইসরায়েলি হামলায় এ পর্যন্ত ২১২ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন, তাদের মধ্যে ৬১টি শিশু রয়েছে।

হোয়াইট হাউসের বিবৃতি জানায়, হামাসের নির্বিচার রকেট হামলার বিপরীতে ইসরায়েলের আত্মরক্ষার অধিকারের প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের কঠোর সমর্থন পুনর্ব্যক্ত করেছেন বাইডেন। যদিও ইসরায়েলের সহিসংতার প্রতি বাইডেনের একতরফা সমর্থনে তার ডেমোক্র্যাটিক পার্টিতে ক্ষোভ রয়েছে।

এর আগে ইসরায়েলি অন্তবর্তী প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু বলেছেন, গাজায় ইসরায়েলি বিমান হামলা ‘পুরোদমে’ চলবে। ইসরায়েলি বোমায় এখন পর্যন্ত কয়েক হাজার ফিলিস্তিনি বাস্তুচ্যুত হয়েছেন।

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: