প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

দিলওয়ার খান

বিশেষ প্রতিনিধি, নেত্রকোনা

রোজিনা ইসলামের গ্রেপ্তারের ঘটনায় নেত্রকোণায় প্রতিবাদ

   
প্রকাশিত: ৫:০৫ অপরাহ্ণ, ১৮ মে ২০২১

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তার কক্ষ থেকে কথিত গুরুত্বপূর্ণ সরকারি নথি চুরির চেষ্টা এবং মুঠোফোনে ছবি তোলার অভিযোগে প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক রোজিনা ইসলামকে আটকে রেখে হেনস্থা, গ্রেপ্তার ও মামলার ঘটনায় ক্ষোভ, ঘৃণা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে নেত্রকোণার সাংবাদিক সমাজ।

আজ মঙ্গলবার (১৮ মে) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শহরের মোক্তারপাড়া এলাকায় প্রেসক্লাবের সামনের সড়কে নেত্রকোণা সাংবাদিক সমাজের ব্যানারে এই প্রতিবাদ জানানো হয়।

এসময় মামলা প্রত্যাহার, রোজিনা ইসলামের নি:শর্ত মুক্তি ও তাঁকে হেনস্থায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানানো হয়। এতে ইলেকট্রনিক্স ও প্রিন্ট ও অনলাইন মিডিয়ায় কর্মরত সাংবাদিক ছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ নানা শ্রেণি-পেশার লোকজন অংশ নেন।

প্রায় ঘন্টাব্যাপী এই কর্মসূচি চলাকালে বক্তব্য দেন, জেলা প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা হায়দার জাহান চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক এম. মুখলেছুর রহমান খান, জেলা সুজনের সভাপতি শ্যামলেন্দু পাল, আব্দুর রহমান ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ (এআরএফবি)র চেয়ারম্যান দিলওয়ার খান, নেত্রকোনা সাহিত্য সমাজের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল্লাহ এমরান, জেলা উদীচীর সহ-সম্পাদক ও ছড়াকার সঞ্জয় সরকার, জেলা টেলিভিশন সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি খলিলুর রহমান শেখ, এনটিভির প্রতিনিধি ভজন দাস, মাইটিভির প্রতিনিধি আনিসুর রহমান, বাংলার নেত্র পত্রিকিার সম্পাদক কামাল হোসাইন, নেত্রকোণা জার্নাল সম্পাদক মুহা. জহিরুল ইসলাম অসীম প্রমুখ।

এসময় বক্তারা বলেন, কল্পিত অভিযোগ তুলে মন্ত্রণালয়ের কক্ষে রোজিনাকে ঘণ্টার পর ঘণ্টা আটকে রেখে সরকারি কর্মকর্তারা ফৌজদারি অপরাধ করেছেন। তাঁরা পেশাগত দায়িত্ব পালনে বাঁধা দিয়েছেন। অবিলম্বে রোজিনার মুক্তি দাবি করে ঘটনায় জড়িত সরকারি কর্মকর্তাদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে শাস্তি দিতে হবে।

এ দিকে রোজিনার আশু মুক্তি দাবি করে জেলার কেন্দুয়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক লিয়াকত আলী চৌধুরী ও কলমাকান্দা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মো. ফকরুল আলম, পূর্বধলা রিপোর্টাস ক্লাবের সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন পৃথক পৃথক বিবৃতি দিয়ে দাবি জানিয়েছেন। বিবৃতিতে এ ধরনের কর্মকান্ডের মাধ্যমে সরকারের বিরুদ্ধে সাংবাদিকদের ঠেলে দেয়ার ষড়যন্ত্র হচ্ছে বলে তাঁরা অভিযোগ করেন।

নাঈম/নিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: