প্রচ্ছদ / স্পোর্টস / বিস্তারিত

মাঠে কী ঘটল সাকিব-সুজনের মধ্যে?

   
প্রকাশিত: ৬:৩১ অপরাহ্ণ, ১১ জুন ২০২১

মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অপ্রীতিকর এক ঘটনার সৃষ্টি হয়েছে। আবাহনী লিমিটেড বনাম মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের মধ্যকার ম্যাচে মেজাজ হারালেন সাকিব আল হাসান। মুশফিকুর রহীমের বিপক্ষে লেগবিফোর উইকেটের জোরালো আবেদন নাকচ হয়ে যাওয়ায় ক্ষুব্ধ হয়ে লাথি মেরে স্ট্যাম্প ভেঙে ফেলা এবং বৃষ্টি শুরুর আগেই আম্পায়ারদের খেলা বন্ধ করার সিদ্ধান্তে সাকিব আল হাসানের তিন স্ট্যাম্প তুলে আছাড় মারার ঘটনায় শেরে বাংলায় হঠাৎ উত্তেজনা। সে উত্তেজনা ডালপালা গজালো আরও। আজ শুক্রবার (১১ জুন) চলতি ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে (ডিপিএল) মুখোমুখি হয়েছিল আবাহনী বনাম মোহামেডান।

বৃষ্টিতে খেলা বন্ধ হওয়ার পর মাঠ ছাড়ার আগে মোহামেডান অধিনায়ক সাকিব আর আবাহনী কোচ খালেদ মাহমুদ সুজন তেড়ে গেলেন একজন আরেকজনের দিকে। সঙ্গী-সাথীরা কোনোমতে তাদের আটকে রাখেন। আসলে কী ঘটেছিল? সাকিব কি বলেছিলেন বা কেমন ইঙ্গিত করেছিলেন? আবাহনী ড্রেসিংরুম থেকে কোচ সুজনই বা কেন ছুটে এসে তেড়ে গেলেন? তা নিয়ে নানা জল্পনা-কল্পনা।

প্রেসবক্স থেকে ঘটনা বুঝে উঠতেও সময় লাগলো। পরে জানা গেল, সাকিব যখন মাঠ ছেড়ে নিজ ড্রেসিংরুমের দিকে ফিরে যাচ্ছিলেন, তখন গ্র্যান্ডস্ট্যান্ডে থাকা আবাহনী সমর্থকদের কজন তাকে নিয়ে কিছু একটা মন্তব্য করেন। জবাবে সাকিবও হাত দিয়ে একটা ইঙ্গিত করেন।

সেই ঘটনার জেরেই ড্রেসিংরুম থেকে বেরিয়ে সাকিবের দিকে তেড়ে যান আবাহনী কোচ সুজন। তবে দু’দলের খেলোয়াড় ও কর্মকর্তারা তাদের জাপটে ধরে আটকান বড় বিব্রতকর পরিস্থিতি তৈরির আগে। পরে ভুল বোঝাবুঝিরও অবসান ঘটে।

সুজন মনে করেছিলেন, সাকিব তাকে লক্ষ্য করে কোনো অশ্লীল ইঙ্গিত দিয়েছেন। কিন্তু সাকিব নিশ্চিত করেন- সুজনকে নয়, অপ্রীতিকর মন্তব্য করা আবাহনী সমর্থকদের উদ্দেশ্যেই হাত দিয়ে ইঙ্গিত করেছেন তিনি। এ বিষয়টি তাই সেখানেই সুরাহা হয়। নতুন করে আর কোনো উত্তেজনা ছড়ায়নি।

নাঈম/নিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: