প্রচ্ছদ / স্পোর্টস / বিস্তারিত

সাকিবের স্টাম্প ভাঙার ঘটনায় যা বললেন স্ত্রী শিশির

   
প্রকাশিত: ১০:৩২ পূর্বাহ্ণ, ১২ জুন ২০২১

গত শুক্রবার চির প্রতিদ্বন্দ্বী মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব ও আবাহনী লিমিটেডের ম্যাচের মধ্যে ঘটেছে অবিশ্বাস্য এক ঘটনা। মেজাজ নিয়ন্ত্রণে রাখতে না পেরে লাথি দিয়ে স্টাম্প ভেঙেছেন। আম্পায়ারের সঙ্গে বাজে আচরণ ও আবাহনী কোচ খালেদ মাহমুদ সুজনের সঙ্গে ঝগড়ায় জড়িয়েছেন। এ ঘটনার পর অ-খেলোয়াড়সুলভ অসদাচরণের জন্য ক্ষমাও চেয়েছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব। শুক্রবার (১১ জুন) সন্ধ্যায় ফেসবুকে দেয়া এক পোস্টের মাধ্যমে তিনি ভবিষ্যতে এমন ভুল করবেন না বলেও প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

তবে এ ঘটনায় সাকিবের পক্ষে সরব হয়েছেন তার স্ত্রী উম্মে আহমেদ শিশির। শুক্রবার দিবাগত রাত ১টা ৩৯ মিনিটে নিজের ফেসবুক পেজে তিনি একটি পোস্ট দেন। শিশির তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পাতায় লেখেন, ‘আমি ঘটনাটি নিয়ে বেশ কিছু টেলিভিশনের খবরে বিস্মিত হয়েছি। অন্যায়ের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো একজনকে যেভাবে জনগণ সমর্থন দিচ্ছে, সেটা সত্যিই দারুণ ব্যাপার। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য- কিছু মিডিয়ার কারণে আসল ঘটনা চাপা পড়ে গেছে। ফুটেজে শুধু রাগের বহিঃপ্রকাশ দেখানো হয়েছে। আসল বিষয়টি ছিল ম্যাচ চলাকালে আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত নিয়ে। মিডিয়ায় যে সব শিরোনাম দেওয়া হচ্ছে তা দুঃখজনক। আমার মতে তাকেই খলনায়ক বানানো হচ্ছে।’

শিশিরের পোস্টের কমেন্টে অনেকেই তাঁর বক্তব্যক সমর্থন করে সাকিবের পাশে দাঁড়িয়েছেন। সোহাগ ইসলাম নামের একজন লিখেছেন- ‘প্রতিটি ক্রিকেটার একজন করে সাকিব হলে আমাদের দেশের ক্রিকেট আজ আরও বেশী ভালো থাকতো। সাকিব এর এই লাথি স্ট্যাম্পে নয় এই লাথি আমাদের দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটের দুর্নীতির মুখে মারা হয়েছে।’ আব্দুল্লাহ আল মামুন নামের একজন লিখেছেন, ‘অন্যায়ের প্রতিবাদ কিভাবে করতে হয় তুমি আবারও দেখিয়ে দিলে। গর্বে বুকটা ফুলে ওঠে যে আমাদের একটা সাকিব আছে।’

ইয়াছিন হানজালা ইফতি লিখেছেন, গ্রেট জব সাকিব-আল-হাসান। আপনি ১০০% ঠিক আছেন। এইরকম অবাধ্য, উদ্ধত বলেই মিডিওকিউর একটা দল থেকে আপনি বিশ্বসেরার কাতারে যেতে পেরেছেন। নিয়ম মানা বাধ্য গৃহপালিত অবলা প্রাণী হলে লেভেলটা বড়জোর ওই আশরাফুল পর্যন্তই যাইতো। বাংলাদেশের ডমেস্টিক লিগ ফাতরামি ছাড়া কিছুই না। পাতানো ম্যাচ,বাজে আম্পায়ারিং কি-না হয় এখানে। সেই লিগ খেলতে না চাইলে আবার সাকিবের ভাব বেশী, অহংকারী। মিডল স্ট্যাম্পের লেগ বিফোর না দেয়া, আবাহনী যাতে না হারে এজন্য এক বল আগে খেলা বন্ধ করে দেয়া এইসব বদমায়েশী করে লিগ নামানোর দরকার কি। অথর্ব ম্যানেজমেন্ট ১০ বছর ধরে একটা প্লেয়ার বের করতে পারে নাই এইসব করে। আপনাদের দৌড় সাকিবরে নিষিদ্ধ করা পর্যন্তই। প্রতিটি ক্রিকেটার একজন করে সাকিব হলে আমাদের দেশের ক্রিকেট আজ আরো বেশী ভালো থাকতো। সাকিব এর এই লাথি স্ট্যাম্প এ নয় এই লাথি আমাদের দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটের দুর্নীতির মুখে মারা হয়েছে।

না.হাসান/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: