প্রচ্ছদ / স্পোর্টস / বিস্তারিত

ন্যূনতম চার ম্যাচ সর্বোচ্চ ৮ ম্যাচ নিষিদ্ধ হতে পারেন সাকিব

   
প্রকাশিত: ২:০৫ অপরাহ্ণ, ১২ জুন ২০২১

ফাইল ছবি

চলতি ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ টি-টোয়েন্টির ম্যাচে মাঠে খেলার মাঠে মেজাজ হারিয়ে স্টাম্পে লাথি ও আছাড় মারার ঘটনায় শাস্তি পেতে চলেছেন মোহামেডান অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। দুই আম্পায়ার ও রেফারির প্রতিবেদন যাবে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের কর্তৃপক্ষ সিসিডিএম। বিসিবি পরিচালক ও সিসিডিএম প্রধান কাজী ইনাম আহমেদ জানান, প্রতিবেদনের ভিত্তিতে শাস্তি নির্ধারিত হবে, ‘নিয়ম ভাঙলে কী হয় সেটা সবাই জানে। সে প্রতিবেদনই আসুক, আমরা সেই অনুযায়ী কাজ করবো।’

এর আগে ঘটনার পর শুক্রবার নিজের ভেরিফাইড পেজে ক্ষমা চেয়েছেন সাকিব আল হাসান। এছাড়া ব্যক্তিগতভাবে ক্ষমা চেয়েছেন আবাহনী কোচ ও বিসিবি পরিচালক খালেদ মাহমুদ সুজনের কাছেও। ড্রেসিংরুমে দুজনের হাসিমুখে আলিঙ্গনাবদ্ধ হয়ে ঝামেলা মীমাংসা করে ফেলেছেন বলে জানান আবাহনীর ম্যানেজার শেখ মাসুদ ইকবাল। এ ছাড়া খেলাশেষে আম্পায়ারদের সঙ্গেও হাসিমুখে কথা বলতে দেখা গেছে তাকে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের একটি সূত্র জানিয়েছে, গতকাল যে উদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ মাঠে দেখিয়েছেন সাকিব সেজন্য তাকে ন্যূনতম চার ম্যাচ নিষিদ্ধ করা হতে পারে। আর যদি ফিল্ড আম্পায়ার এবং ম্যাচ রেফারি বিষয়টি আরও গুরুত্ব সহকারে নেন সে ক্ষেত্রে তাঁর নিষিদ্ধ হওয়া ম্যাচের সংখ্যা গিয়ে দাঁড়াতে পারে আটে।

সূত্রটির দেয়া তথ্যমতে, ‘সাকিবের বিরুদ্ধে লেভেল তিন বিধি ভঙ্গের অভিযোগ আনা হলে চার ম্যাচ নিষিদ্ধ হবেন। আর যদি ফিল্ড আম্পায়ার তাঁর সঙ্গে করা উদ্ধত আচরণ এর বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে একটি সুপারিশ প্রতিবেদন সাকিবের বিরুদ্ধে বিসিবির শৃঙ্খলা কমিটির কাছে দাখিল করেন সেক্ষেত্রে শাস্তির মেয়াদ আরও বাড়বে। কারণ সাকিব মাঠে পাঁচটি ঘটনা ঘটিয়েছেন। প্রথমত তিনি স্ট্যাম্পে লাথি মেরেছেন, দ্বিতীয়ত, আম্পায়ারের সঙ্গে অশোভন আচারণ করেছেন, তৃতীয়ত, স্ট্যাম্প উপড়ে ফেলেছেন, চতুর্থত, গ্রাউন্ডস কর্মীদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেছেন আর পঞ্চমত, তিনি ডাগআউটে থাকা আবাহনী কোচ খালেদ মাহমুদ সুজন এর সঙ্গে তর্কে জড়িয়েছেন।’

ম্যাচ শেষে বিসিবি পরিচালক ও সিসিডিএম প্রধান কাজী ইনাম বলেন, ‘খেলার মাঠে অনেক কিছুই হয়। আজকে আবাহনী-মোহামেডানের খেলা ছিল এবং এখানে বেশ উত্তেজনা ছিল, কিছু ঘটনাও ঘটেছে। সাকিব আল হাসানকে আমরা দেখতে পেয়েছি। এটা ফেসবুক লাইভ এবং ইউটিউব লাইভেও ছিল। তাই আপনারা সবাই দেখতে পেয়েছেন। এটা দুর্ভাগ্যজনক।’

না.হাসান/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: