প্রচ্ছদ / বিনোদন / বিস্তারিত

ঘটনার পর তার কাছে এসে কি বলেছিলেন পরীমনি, জানালেন জায়েদ খান

   
প্রকাশিত: ৯:৪০ পূর্বাহ্ণ, ১৪ জুন ২০২১

ফাইল ছবি

নাইম হাসানঃ উত্তরা বোট ক্লাবের সদস্য নাসির উদ্দিন মাহমুদের বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ঢাকাই ছবির আলোচিত নায়িকা পরীমণি। এর আগে এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাহায্য চেয়েছেন তিনি। সেখানে প্রধানমন্ত্রীকে মা ডেকে তার কাছে সঠিক বিচার ও মেয়ে হিসেবে আশ্রয় চেয়েছেন পরীমণি। রোববার (১৩ জুন) রাত ৮টার দিকে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এ স্ট্যাটাস দেন পরীমণি।

সেই স্ট্যাটাসের পর রোববার রাতেই নিজ বাসায় পরীমনি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, গত বুধবার (৯ জুন) রাতে তার বন্ধু অমি তাকে উত্তরা ক্লাবে নিয়ে যান। এসময় তার সঙ্গে মেকআপম্যানও ছিল। সেখানে গিয়ে দেখেন নাসির উদ্দিনসহ চার-পাঁচজন টেবিলে বসে আছেন। তাদের সঙ্গে পরীমনির পরিচয় করিয়ে দেন অমি। টেবিলে দুটি মদের বোতল ছিল। পরীকে মদপানের প্রস্তাব দিলে তা নাকচ করেন তিনি। পরে তাকে কফি খাইতে দেওয়া হয়। তবে, কফির স্বাদ স্বাভাবিক ছিল না। তাই তিনি কফি পান করেননি। এমনকি পরে সরবরাহ করা কোল্ড ড্রিংকসেও কিছু মেশানো হয়েছিল বলে মনে হয় পরীমনির। তিনি কোল্ড ড্রিংকসও পান করেননি। এতে ক্ষিপ্ত হন বোট ক্লাবের সদস্য নাসির উদ্দিন। পরীমনি ও তার সঙ্গে থাকা জেমী ওয়াশরুমে যেতে চাইলে পরীকে যেতে বাধা দেওয়া হয়। এমনকি পরীমনি ও জেমী বাসায় যেতে চাইলেও বাধা দেওয়া হয়। নাসির উদ্দিন পরীমনিকে লাথি মেরে চেয়ার থেকে ফেলে দেন এবং মুখের মধ‌্যে মদের বোতল ঢুকিয়ে দেন। এতে তার দাঁতের মধ‌্যে আঘাত লাগে এবং কিছু মদ গলার মধ‌্যে চলে যায়। এতে তার বুক জ্বালা করে। তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরীমনি ও জেমী চিৎকার ও কান্না করলে তাদের ধর্ষণ করার হুমকি দেওয়া হয় এবং গালাগালি করা হয়।

এ ঘটনার পর পরীমনি জানিয়েছেন, গত চার দিন ধরে থানা থেকে শুরু করে চলচ্চিত্র বন্ধুদের কাউকে পাশে পাননি তিনি। চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতিতেও অভিযোগ নিয়ে গেছেন। কিন্তু তিনি কোনো প্রতিকার পাননি। যাদেরকে পেয়েছেন সবাই বিস্তারিত ঘটনা জেনে ‘দেখছি’ বলে চুপ হয়ে গেছে। তাই বাধ্য হয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট দিয়েছেন।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারন সম্পাদক জায়েদ খান বিডি২৪লাইভকে জানান, ঘটনার পরদিন বৃহস্পতিবার (১০ জুন) রাতে পরীমনি আমার সঙ্গে যোগাযোগ করেন। তখন পরী আমাকে জানান, আইজিপি স্যারের সঙ্গে আমার একটু দেখা করা দরকার। তোমরা আমাকে তার সঙ্গে দেখা করার ব্যবস্থা করে দেও। কেনো দেখা করার দরকার বা কি হয়েছে জানতে চাইলে পরী জানান, উত্তরা বোট ক্লাবে তাকে চার-পাঁচজন মিলে নির্যাতন ও ধর্ষণচেষ্টা করেছে। কারা নির্যাতন করেছে তাদের নাম বা পরিচয় কি জানতে চাইলেও পরী আমাকে তখন জানায়নি।

পরীমনির সংবাদ সম্মেলনেই সেই অভিযুক্ত ব্যক্তির নাম জানতে পেরেছেন বলে দাবি করে জায়েদ খান জানান, অভিযুক্ত ব্যক্তির নাম পরীমনি আমাকে ঘটনার পরে জানায়নি। শুধু বলেছে সেখানে চার-পাঁচজন ছিল এবং তাদের মধ্যে একজন এক পুলিশ কর্মকর্তার বন্ধু বলে পরিচয় দিয়েছেন। পরীমনির সংবাদ সম্মেলন থেকেই নাসির উদ্দিন নামের অভিযুক্ত ওই ব্যক্তির নাম জানতে পারলাম। অভিযুক্ত ব্যক্তিকে আমি চিনিনা। আমাদের ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গেও তার কোনো সম্পূক্ততা নেই।

শিল্পী সমিতির কাছেও অভিযোগ নিয়ে প্রতিকার পাননি বলে পরীমনি যেই অভিযোগ তুলেছেন সে সম্পর্কে জানতে চাইলে জায়েদ খান জানান, শিল্পী সমিতি শিল্পীদের স্বার্থ রক্ষায় কাজ করে। পরীমনির এই ঘটনা জানার পর আমি ওকে পুলিশের কাছে যাওয়ার পরামর্শ দেই। কিন্তু পরীমনি সরাসরি আইজিপি মহোদয়ের কাছেই এই অভিযোগ করবেন বলে জানান। এরপর পরীকে একটি লিখিত সাহায্যর আবেদন দিতে জানাই সমিতি বরাবর। পরীমনির পাশে ছিলাম বলে দাবি করে জায়েদ খান জানান, শিল্পী সমিতির পক্ষ থেকে আমরা পরীমনির পাশে ছিলাম। আমরা চাই পরীমনি তার বিরুদ্ধে অন্যায়ের সঠিক বিচার পাক।

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: