শিক্ষার্থীদের টিকায় স্বমনয়হীনতা

   
প্রকাশিত: ৬:২১ অপরাহ্ণ, ১৩ জুলাই ২০২১

ইমরান হুসাইন, জবি থেকে: জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) শিক্ষার্থীদের করোনা টিকার রেজিস্ট্রশন নিয়ে সমন্বয়হীনতার সৃষ্টি হয়েছে। তবে দায় নিতে চাচ্ছে না কেউই।টিকার নিবন্ধনের একমাস পেরিয়ে গেলেও  টিকা প্রদানের এখনও কোন চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত মেলেনি। এতে দ্বায়িত্বরত ব্যক্তিদের ভিন্ন ভিন্ন তথ্য ক্ষোভের সৃষ্টি হচ্ছে শিক্ষার্থীদের মাঝে। এ বিষয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড.ইমদাদুল হক বলেন,টিকা আমরা দ্রুত পাবো। মন্ত্রনালয়ে নাম পাঠিয়ে দিয়েছি। নতুন করে রেজিস্ট্রেশনের প্রয়োজন নেই।

তবে ইউজিসির সচিব বলছেন,অনাবাসিক হলে জবির শিক্ষার্থীরা টিকা পেতে কিছুদিন সময় লাগতে পারে। তবে নতুন করে রেজিস্ট্রেশনের প্রয়োজন নেই। অন্যদিকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বলছেন,বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আবেদন পাঠালে আমরা সুরক্ষা এপসে সেটা ডাউনলোড দেই। তারপর সুরক্ষা এপসে পুনরায় ’বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী’ ক্যাটাগরি সিলেক্ট করে আবেদন করতে হবে।

অন্যদিকে জবি ছাত্রকল্যাণ পরিচালক বলছেন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের তথ্য ভিন্ন ক্যাটাগরিতে আপলোড হয়ে গেছে। এমন কেন হয়েছে এটা তো বলতে পারি না। এই মূহুর্তে এসব প্রশ্ন তোলার সময় না। আমরা কথা বলেছি। অফিসিয়ালি ক্লিয়ারেন্স পেলে বিজ্ঞপ্তি দিবো। শিক্ষার্থীরা নাগরিক শ্রেণীতে আবেদন করলেও টিকা পাবে।

এবিষয়ে এমআইএস পরিচালক ড. মিজনুর রহমান বলেন, জগন্নাথের শিক্ষার্থীদের ডাটা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী ক্যাটাগরিতে না হয়ে নাগরিক শ্রেণী (তদুর্ধ্ব-৩৫) ক্যাটাগরিতে আপলোড হয়েছে। এরকম কেন হয়েছে জানি না। আইসিটি বিভাগ ভালো বলতে পারবে। মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়মিত শিক্ষার্থীদের মধ্যে যাদের পরিচয়পত্র (এনআইডি) নেই তাদের করোনার টিকা প্রাপ্তির লক্ষ্যে দ্রুততম সময়ে জাতীয় পরিচয়পত্র করার আহ্বান জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষ। এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর মোস্তফা কামাল বলেন, ইতোমধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন নির্বাচন কমিশনের সাথে আলোচনা করে  জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে জাতীয় পরিচয়পত্র প্রাপ্তির বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

এইhttps://services.nidw.gov.bd/new_voter ওয়েব লিংকে গিয়ে বর্ণিত ধাপসমূহ সম্পন্ন করে শিক্ষার্থীদের অনলাইনে পূরণকৃত ফরমটি (ফরম-২) পিডিএফ ফরম্যাটে ডাউনলোড করতে হবে। এরপর পিডিএফ ফরমটি প্রিন্ট করার পর প্রয়োজনীয় স্বাক্ষর ও সত্যায়িত করে শিক্ষার্থীরা জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের আইডি কার্ডের কপি বা ট্রান্সক্রিপ্ট এবং অন্যান্য প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টসহ আবেদনপত্র উপজেলা/থানা নির্বাচন অফিসে জমা দিলে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে জাতীয় পরিচয়পত্র প্রদান করা হবে। এবং জাতীয় পরিচয়পত্র প্রাপ্তির পর নিয়মিত শিক্ষার্থীরা টিকার জন্য আবেদন করলে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন দ্রুততম সময়ে তাদের টিকা প্রাপ্তির বিষয়টি নিশ্চিত করবে।

ফরমান/মস

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: