প্রচ্ছদ / রাজনীতি / বিস্তারিত

সরকার বাংলাদেশেকে দুর্নীতিতে পরিপূর্ণ করে ফেলেছে: মির্জা ফখরুল

   
প্রকাশিত: ১০:২৪ অপরাহ্ণ, ৩০ জুলাই ২০২১

ছবি: ইন্টারনেট

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলছেন, সরকার বাংলাদেশেকে দুর্নীতিতে পরিপূর্ণ করে ফেলেছে। আজ শুক্রবার (৩০ জুলাই) বিকেলে এক ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন। মির্জা ফখরুল বলেন, আজ সরকার কী করেছে? একটা মিথ তৈরি করতে চায়। মিথটা হলো, সাউথ-ইস্ট এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে একটা রোল মডেল মধ্য আয়ের দেশ, উন্নয়নের রোল মডেল বাংলাদেশ। এটা একটা মিথ ছাড়া কিছু না। তিনি বলেন, কিন্তু বাস্তব অবস্থাটা কি? বাস্তব অবস্থাটা হচ্ছে, এখন এদেশে প্রায় ৬ কোটি লোক দারিদ্র্যসীমার নিচে। আজকে করোনার যে আঘাত এসেছে সেই আঘাত সহ্য করতে পারছে না বাংলাদেশ, অর্থনীতি সহ্য করতে পারছে না।

মির্জা ফখরুল বলেন, আজকে আরো দুই কোটি লোক নতুন করে দরিদ্র হয়ে গেছে। একদিকে কিছু লোক লুটের, দুর্নীতির মধ্য দিয়ে হাজার হাজার কোটি টাকার মালিক হয়ে যাচ্ছে, অন্যদিকে দরিদ্র মানুষ আরো দরিদ্র হয়ে যাচ্ছে। মির্জা ফখরুল বলেন, গোটা দেশে এখন দুর্নীতিতে পরিপূর্ণ হয়ে গেছে। সেই ১৯৭৫ সালে যে উদ্দেশ্য ছিল যে, বাংলাদেশকে একটা নতজানু দেশ হিসেবে পরিণত করবে, পরনির্ভরশীল অর্থনীতি হিসেবে তৈরি করবেম সেই উদ্দেশ্যে তারা (সরকার) এখনও কাজ করে যাচ্ছে। তিনি আরও বলেন, সরকার শেয়ার মার্কেট থেকে শুরু করে ব্যাংকিং সেক্টরকে ধ্বংস করে দিয়েছে। মানিলন্ডারিং এমন পর্যায়ে গিয়ে পৌঁছেছে যে, এখন সরকার নিজে বলছে এটা নিয়ন্ত্রণ করা দরকার।

ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন। জাতীয় উদযাপন কমিটির আহবায়ক ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব আবদুস সালামের সঞ্চালনায় আলোচনায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন- বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য জমিরুউদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ড. আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, সেলিমা রহমান, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টু, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক মাহবুব উল্লাহ, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক খন্দকার মোস্তাহিদুর রহমান।

নাঈম/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: