প্রচ্ছদ / জাতীয় / বিস্তারিত

আপাতত শিল্পকারখানার কাজে যোগ না দিলে কর্মীদের চাকরি যাবে না: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

   
প্রকাশিত: ৫:০২ অপরাহ্ণ, ৩১ জুলাই ২০২১

ছবি: ইন্টারনেট

দেশজুড়ে চলা কঠোর বিধিনিষেধের মধ্যে শিল্পকারখানায় কাজে যোগ না দিলে সেসব প্রতিষ্ঠানের কর্মীদের চাকরি যাবে না বলে আশ্বাস দিয়েছেন সরকারের জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন। তিনি বলেন, যেসব কর্মী ঢাকায় রয়েছেন, তাঁদের নিয়ে রোববার (১ জুলাই) থেকে স্বল্প পরিসরে রপ্তানিমুখী শিল্পপ্রতিষ্ঠানগুলো খোলার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

করোনা মহামারির মধ্যে ১ থেকে ১৪ জুলাই প্রথম দফায় এবং ২৩ জুলাই থেকে দ্বিতীয় দফার কঠোর বিধিনিষেধ দেওয়া হয়। ২৩ জুলাই থেকে শুরু হওয়া বিধিনিষেধের মধ্যে সব ধরনের শিল্পকারখানা বন্ধ রাখা হলেও শিল্প মালিকদের দাবির মুখে রোববার সকাল থেকে রপ্তানিমুখী সব শিল্পকারখানা খোলার অনুমতি দিয়েছে সরকার। এর পর থেকে শ্রমিকেরা ঢাকায় আসতে শুরু করেছেন।

এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে ফরহাদ হোসেন বলেন, ‘৫ আগস্টের আগে ঢাকায় না ফিরলে কোনো শ্রমিকেরই সমস্যা হবে না। কারণ, সেই শর্ত দিয়েই রপ্তানিমুখী কারখানা খোলার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।’ তিনি বলেন, ‘বিজিএমইএ, বিকেএমইএর নেতারা প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, ঈদে যারা (যেসব শ্রমিক) বাড়ি যাননি এবং ঈদের পর যাঁরা ফিরে এসেছেন, তাঁদের নিয়ে ছোট পরিসরে ১ আগস্ট থেকে কারখানা খুলবেন তাঁরা। আর আগামী ৫ আগস্টের পর ধাপে ধাপে কর্মচারীদের নিয়ে আসবেন। ফলে ৫ আগস্টের আগে কোনো কর্মচারী কাজে যোগ না দিলে (তাঁদের) কারও চাকরি যাবে না, কোনো সমস্যা হবে না।’

আগামী ৫ আগস্টের পরও লকডাউন থাকবে কি না-এমন প্রশ্নের জবাবে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী বলেন, আগামী ৩ বা ৪ আগস্ট এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানানো হবে। তিনি বলেন, ‘আমাদের কাছে অনেকগুলো পরামর্শ আছে। বিকল্প কী হতে পারে, সে বিষয়েও আমরা ভাবছি। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করে এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

এআইআ/এইচি

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: