প্রচ্ছদ / জাতীয় / বিস্তারিত

দোকানপাট খোলা নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে যা বললেন দোকান মালিক সমিতি

   
প্রকাশিত: ১১:০৫ অপরাহ্ণ, ১ আগস্ট ২০২১

চলমান কঠোর বিধিনিষেধ শেষে সব ধরনের দোকানপাট, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও বিপণিবিতান খুলে দেওয়ার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতি। আগামী শুক্রবার (৬ আগস্ট) থেকে জীবন-জীবিকা বাঁচাতে এ দাবির কথা জানান। রোববার (১ আগস্ট) রাজধানীর নিউমার্কেটে দোকান মালিক সমিতির কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানান সমিতির নেতারা।

প্রসঙ্গত, করোনা সংক্রমণ রোধে সরকার গত ১ জুলাই থেকে কঠোর বিধিনিষেধের ঘোষণা দেয়। তবে ঈদুল আযহার জন্য ১৯ জুলাই থেকে ২২ জুলাই পর্যন্ত বিধিনিষেধ কিছুটা শিথিল করা হয়। এরপর আবার ২৩ জুলাই থেকে ৫ আগস্ট কঠোর লকডাউনের ঘোষণা দেয় সরকার। তবে ১ আগস্ট থেকে কারখানা খুলে দেওয়া হয়েছে।

দোকান মালিক সমিতির সভাপতি হেলাল উদ্দিন বলেন, ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের অবস্থা খুব খারাপ। দোকান বন্ধ। তাদের আয়ও বন্ধ। তাদের জীবন এখন থমকে গেছে। তাই সরকারের প্রতি আমরা আবেদন করেছি এসব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার।

তিনি বলেন, ২০২০ সালে করোনা সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত মোট ২৭০ দিন দোকানপাট বন্ধ ছিল। আর সবমিলিয়ে গত দেড় বছরে ব্যবসায়ীদের ক্ষতি হয়েছে ২ লাখ ৭০ হাজার কোটি টাকা।

এছাড়া ৫ আগস্টের পর দোকান খোলার সঙ্গে মালিক সমিতি চার দফা দাবি পেশ করে। এর মধ্যে আছে- দেশজুড়ে টিকা প্রদানের ব্যবস্থা করা, মাস্ক পরিধান নিশ্চিত করতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী নিয়োগ ও ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের নগদ প্রণোদনা দেওয়া।

দোকান মালিক সমিতির তথ্যানুসারে, তাদের হিসাবে দেশে পাইকারি ও খুচরা বিক্রেতা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা প্রায় ৫৬ লাখ। এ খাতে কর্মচারী আছেন দুই কোটির বেশি। এই পরিস্থিতিতে তারা যেমন ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন, তেমনি এই খাতসংশ্লিষ্ট অন্যরাও ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন।

কাওসার/শিই

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: