‘লাভ মি মোর’ নয় পরীমনি লিখেছেন ‘…ক মি মোর’

                       
প্রকাশিত: ৪:৩৯ অপরাহ্ণ, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১

মাদক মামলায় বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) আদালতে হাজিরা দিয়েছেন ঢালিউড চিত্রনায়িকা পরীমনি। বেলা পৌনে ১১টার দিকে আদালতে হাজির হয়েছেন তিনি। মুখ্য মহানগর হাকিম সত্যব্রত শিকদারের আদালতে পরীমনির পরবর্তী হাজিরা তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ১০ অক্টোবর। বুধবার সকালে ভিড় ঠেলে আদালতে যেতে হয়েছে পরীমনিকে। হাজিরা দিয়ে উৎসুক জনতার উদ্দেশ্যে হাত নেড়েছেন তিনি। এ সময় তার ডান হাতে মেহেদী দিয়ে নতুন লেখা দেখা গেছে। পরীমনি লিখেছেন, ‘…ক (চিহ্ন) মি মোর’। যা নিয়ে রীতিমতো আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।

তবে পরীমনির হাতের লেখা নিয়ে বেশ কিছু প্রতিবেদনে প্রকাশ হয়েছে, এই অভিনেত্রী তার হাতে লিখেছেন, ‘লাভ মি মোর’ । এ বিষয়ে আপত্তি তুলেছেন খোদ পরীমনি নিজেই। একটি গণমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে পরী বলেন, আমার কষ্ট লাগছে এখন। অনেকেই আমার বার্তাটি ঠিক বুঝতে পারছেন না, ভুল বুঝছেন। সবাই ভাবছেন আমি লিখেছি ‘লাভ মি মোর’। আসলে তো আমি লিখেছি ‘…ক (গালি) মি মোর’।

ঠিক কারণে এ কথাটি লিখেছেন পরীমনি তা জানতে তার ব্যক্তিগত নাম্বারে যোগাযোগ করলে সেটি বন্ধ পাওয়া গেছে। তবে দেশীয় একটি সংবাদমাধ্যমকে এ নায়িকা বলেছেন, ‘কী লিখেছি আপনারা বুঝে নেন। আর এর মাধ্যমে আমি বোঝাতে চাচ্ছি, শেষ পর্যন্ত লড়াই করতে চাই। এতো সহজে হাল ছাড়ার মতো লোক নই আমি। যাই হোক না কেন এখানেই আমাকে দমাতে পারবে না। মনে করুন, সেই সব প্রতিবাদী মনোভাব আজকের সিম্বলের মাধ্যমে বুঝিয়ে দিয়েছি। এটা ছিল মেটাফোর।’

এর আগে কাশিমপুর কারাগার থেকে জামিনে মুক্ত হওয়ার সময় পরীমনি তার ডান হাতের তালুতে লিখেছিলেন, ‘ডোন্ট লাভ মি বিচ।’ যা রীতিমতো ভাইরাল হয়ে যায়।

এদিকে বুধবার সকাল ১১টার দিকে ভিড় ঠেলে ১২ নম্বর আদালতে প্রবেশ করেন পরীমনি। তার আইনজীবীরা সেখানে উপস্থিত না থাকায় বের হয়ে আসেন পরীমনি। আদালত থেকে বের হয়ে হাজতখানায় প্রবেশ করেন পরীমনি। পরে তার সঙ্গে দেখা করেন আইনজীবী নীলাঞ্জনা রিফাত সুরভী। পরে বেলা ১২টার দিকে আদালতে হাজিরা দেন পরীমনি। এ সময় তার দুইটি গাড়ি, ল্যাপটপ ও মোবাইল চেয়ে আবেদন করেন আইনজীবী মো. মজিবুর রহমান। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় গ্রেপ্তার হওয়ার পর এগুলো আলামত হিসেবে জব্দ করা হয়েছিল। আবেদনের প্রেক্ষিতে আদালত এ ব্যাপারে কোনো সাড়া দেননি।

না.হাসান/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


পাঠকের মন্তব্য:

বর্তমানে জাতীয় সংসদ, নির্বাচন কমিশন সবিচালয়, আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জামায়াত, জাতীয় পার্টি, অপরাধ, সচিবালয়, আদালত, ব্যবসা-বাণিজ্য, শিক্ষা, খেলাধুলা, বিনোদনসহ প্রায় সব গুরুত্ত্বপূর্ণ বিটেই রয়েছে একঝাঁক তরুণ সাংবাদিক। এছাড়া সারাদেশে বিডি২৪লাইভ ডটকম’র রয়েছে প্রতিনিধি।

লাইফ স্টাইল

নিবন্ধন নং- ২২

© স্বত্ব বিডি২৪লাইভ মিডিয়া (প্রাঃ) লিঃ
এডিটর ইন চিফ: আমিরুল ইসলাম আসাদ
বাড়ি#৩৫/১০, রোড#১১, শেখেরটেক, ঢাকা ১২০৭

ফোন: ০৯৬৭৮৬৭৭১৯০, ০৯৬৭৮৬৭৭১৯১
ইমেইল: info@bd24live.com