ডিজিটাল মার্কেটিংয়ে সফল হতে চান জাকারিয়া পার্থ

   
প্রকাশিত: ১২:৫৬ অপরাহ্ণ, ১৩ অক্টোবর ২০২১

আবু জাহিদ জাকারিয়া পার্থ। সাইবার সিকিউরিটি বিশেষজ্ঞ এবং ডিজিটাল মার্কেটার হিসেবে পরিচিত নাম। পাশাপাশি একজন বাংলাদেশি সংগীত শিল্পী, উদ্যোক্তা ও সাইবার সিকিউরিটি (বিশেষজ্ঞ) হিসেবে পরিচিতি অর্জন করেছেন এই তরুণ। জামালপুর সরকারি আশেক মাহমুদ কলেজের শিক্ষার্থী পার্থ। ছাত্রাবস্থা থেকেই সাইবার সিকিউরিটি এবং ডিজিটাল মার্কেটিংয়ে আগ্রহ তাকে এই মাধ্যমে পরিচিত মুখ করে তুলেছে। দেখতে দেখতে তার জীবনের পথচলায় এখন তিনি বাংলাদেশের সাইবার সিকিউরিটি এবং ডিজিটাল মার্কেটার হিসেবে একজন পরিচিত মুখ। পার্থ একাধারে একজন গ্রাফিক্স ডিজাইনার এবং উদ্যোক্তাও।

Abu Zahid Jakaria Partho নামে নিজের একটি ফেজবুক ফ্যান পেজ দিয়ে কাজ শুরু করেছিলেন তিনি। মূলত ফেসবুকের সুরক্ষাজনিত সমস্যা সমাধান এবং সাইবার নিরাপত্তা তৈরির কাজ করছেন তিনি। বিভিন্ন ধরণের এজেন্সির হয়ে কনটেন্ট প্রজেকশন এবং ডিস্ট্রিবিউশনের মাধ্যমে ডিজিটাল মার্কেটিংও করেন। এছাড়া বিভিন্ন পণ্যের প্রমোশন করে থাকেন অনলাইনের মাধ্যমে। ডিজিটাল চ্যানেল ব্যবহার করে পণ্যের প্রমোশন করাই হচ্ছে ডিজিটাল মার্কেটিং।ইতোমধ্যে আন্তর্জাতিক সংগীত প্ল্যাটফর্ম ইউটিউব, টিকটক এবং স্পটিফাইয়ের অফিসিয়াল শিল্পী হিসাবে ভেরিফাইড করা হয়েছে পার্থ’কে। ২০২১ সালের জানুয়ারিতে ইউটিউবে অফিসিয়াল শিল্পী চ্যানেল হিসেবে ভেরিফায়েড হয়েছিল তার চ্যানেল এবং সম্প্রতি তিনি স্পটিফাই থেকে শিল্পী যাচাই-বাছাইয়ে স্থান পেয়েছেন।

করোনা পরিস্থিতির মধ্যে তিনি এই মুহূর্তে ইউটিউব, স্পটিফাই এবং আইটিউনস এবং সমস্ত স্ট্রিমিং অ্যাপ্লিকেশনগুলির মাধ্যমে বাড়িতে থেকেই গান প্রকাশের চেষ্টা করে যাচ্ছেন। এ অবস্থায় এগুলোই সেরা মাধ্যম বলে তিনি মনে করেন। আর এইজন্য আবু জাহিদ জাকারিয়া পার্থ সবার শুভকামনা এবং সহযোগিতা কামনা করেন; যেন তিনি আরো সুন্দরভাবে সামনে এগিয়ে যেতে পারেন।

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: