প্রচ্ছদ / বিনোদন / বিস্তারিত

শাকিব খানের সঙ্গে নৈশভোজের দাওয়াত পাচ্ছেন সেই গৃহবধূ!

   
প্রকাশিত: ৪:৩২ অপরাহ্ণ, ১৪ অক্টোবর ২০২১

জামালপুরে সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত ‘গলুই’ সিনেমার শুটিংয়ে অংশ নিয়েছিলেন বর্তমান সময়ের ঢাকাই সিনেমার সুপারস্টার শাকিব খান। এতে তার বিপরীতে প্রথমবার অভিনয় করেছেন নায়িকা পূজা চেরী। ছবিটির শুটিংয়ে শাকিব খানকে এক নজর দেখতে দূর দূরান্ত থেকে ছুটে এসেছেন হাজারো মানুষ। এবার জানা গেলো, শুটিং দেখতে নিয়ে না যাওয়ায় স্বামীর ওপর অভিমানে আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছেন জামালপুরের এক গৃহবধূ। জেলার মাদারগঞ্জ উপজেলার গুনারীতলা ইউনিয়নের বাকুরগ্রামে গত (১১ অক্টোবর) বিকেলে চাঞ্চল্যকর এ ঘটনাটি ঘটে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়,সরকারি অনুদানে নির্মিত গলুই সিনেমার শুটিংয়ে অংশ নিতে গত ২৮ সেপ্টেম্বর থেকে চলচিত্র সুপারস্টার শাকিব খান জামালপুরের মাদারগঞ্জ ও বগুড়া জেলার সারিয়াকান্দি সীমানার জামথল ঘাটে অবস্থান করছেন। কিং খানকে একনজর দেখতে প্রতিদিন সারিয়াকান্দি ও মাদারগঞ্জ উপজেলার হাজার হাজার দর্শক শুটিংকালে ভিড় করে। সোমবার (১১ অক্টোবর) বিকালে উপজেলার গুনারীতলা ইউনিয়নের বাকুরগ্রামের ইয়াসিনের স্ত্রী শাকিবের শুটিং দেখতে যাওয়ার বায়না ধরেন। কিন্তু স্বামী অসুস্থ থাকায় সেদিন নিয়ে যেতে না পারায় উভয়ের মধ্যে ঝগড়ার সৃষ্টি হয়। কিছুক্ষণ পর গৃহবধূ সুমাইয়া ঘরের দরজা বন্ধ করে গলায় ওড়ঁনা পেঁচিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালান। বিষয়টি টের পেয়ে তার স্বামী দরজা ভেঙে তাকে ঝুলানো অবস্থায় মাটিতে নামান।

ওই গৃহবধূর স্বামী জানান, ‘জামথল ঘাটে শাকিব খানের শুটিং দেখার জন্য আমার স্ত্রী বায়না ধরে। আমি জন্ডিস রোগে আক্রান্ত থাকায় দু-একদিন পর নিয়ে যেতে চাই। কিন্তু সে তা না মানায় আমাদের মাঝে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে ঘরের দরজা বন্ধ করে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায় সে।’

এ ঘটনা প্রসঙ্গে ‘গলুই’ সিনেমার প্রযোজক এবং বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক-পরিবেশক সমিতির সাবেক সভাপতি খোরশেদ আলম খসরু বলেছেন, তিনিও এ খবর শুনেছেন। একাধিক মাধ্যমে যোগাযোগ করে তাঁর কাছে ঘটনাটি সত্য বলে মনে হয়েছে। খোরশেদ আলম খসরু বলেছেন, ‘পুরো টিমের পক্ষ থেকে দুঃখ প্রকাশ করছি। আমরা শুনেছি, ওই নারী নববধূ। ওই পরিবারের খোঁজ পেলে তাঁকে আমরা নৈশভোজের আয়োজন করে সংবর্ধনা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সেখানে শাকিব খান ও পূজা চেরি উভয়ই উপস্থিত থাকবেন।’

এদিকে বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলেছেন শাকিব খানও। তিনি বলেন, ‘ঘটনাটা গতকাল শুনেছি আমি। মন খারাপ হয়েছে খুব। এটা কখনোই কাম্য নয়। কোনো মানুষেরই এমনটা করা উচিত নয়। জীবন সবার আগে। তারপর আবেগ ইমোশন। ওই দম্পতিকে আমাদের শুটিং সেটে নিয়ে আসতে বলেছি স্থানীয় প্রশাসনকে। কিছুটা সময় তাদের সঙ্গে কাটাতে চাই। এমন পাগলামিতে ভরা ভালোবাসার জন্যই আমি আজকের আমি হয়েছি। এখানে কাজ করতে এসে খুব দারুণ অভিজ্ঞতা হচ্ছে। প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ আসছেন।’

না.হাসান/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: