প্রচ্ছদ / বিনোদন / বিস্তারিত

সাবধান করলেন নায়িকা মাহি (ভিডিও)

   
প্রকাশিত: ৬:২৮ অপরাহ্ণ, ১৫ অক্টোবর ২০২১

সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ সরব ঢাকাই সিনেমার অন্যতম শীর্ষ নায়িকা মাহিয়া মাহি।প্রতিনিয়ত বিভিন্ন স্ট্যাটাস, কবিতা, ছবি ও ভিডিও শেয়ার করে ভক্তদের মাতিয়ে রাখেন তিনি। শুক্রবার (১৫ অক্টোবর) নিজের প্রোফাইলে একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন মাহি। ক্যাপশনে লিখেছেন- ‘সাবধান’। সেখানে দেখা যাচ্ছে, একজন শরবত বিক্রেতা ড্রেনের ভেতর দিয়ে বয়ে চলা পাইপের পানি দিয়ে শরবত রাখার বক্স ধুয়ে নিচ্ছেন।

ভিডিওতে মাহি বলেন, ‘এই যে পাইপটা গেছে ড্রেনের ভেতর দিয়ে। শরবতের পানি নিচ্ছে! ঘটনা হচ্ছে, এই পাইপটা যদি কোনোক্রমে লিক হয়ে থাকে, তাহলে তো ড্রেনের ময়লাটা পাইপের মধ্যে ঢোকার সম্ভাবনা থাকে। সবাই সাবধান থাকবেন। যারা শরবত খান, তারা একটু বেশি সাবধান থাকবেন।’ বিভিন্ন সময়ে দেয়া স্ট্যাটাসে খানিকটা রহস্য জমিয়ে রাখেন সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব এই চিত্রনায়িকা। কখনও লেখেন, ‘পৃথিবীর সবচেয়ে সুখী মানুষটা আমি। উপরওয়ালা তুমি জাস্ট ওয়াও, আলহামদুলিল্লাহ।’ আবার কখনও লেখেন- ‘জীবনে প্রত্যেকটা মানুষ কমপক্ষে একটি মানুষকে স্বার্থহীনভাবে ভালোবাসে! তারপর সে ঠকে যায়, হয়তোবা ঠকায়; নয়তোবা পরিস্থিতি!’ সবশেষ স্ট্যাটাসে তিনি লিখেছেন, ‘এই ছোট ছোট অনুভুতিগুলা আমি কারে কই?’ এদিকে মাহি স্ট্যাটাস দেন, ছবি দেন, সেখানে নানারকম মন্তব্য নিয়ে হাজির হয়ে যান স্বামী রাকিব সরকার।

‘সাবধান’ করা ভিডিওটি পোস্ট করার আগে গাড়ির ভেতর তোলা সাদাকালো ছবি শেয়ার করে মাহি লিখেছেন, ‘আমরা বাস্তবতার চেয়ে কল্পনায় বেশি ভুগি।’ এর আগে গত ১২ অক্টোবর ফেসবুকে আরও একটি সাদাকালো ছবি শেয়ার করেন মাহি। আনমনে অন্যদিকে তাকিয়ে থাকা সেই ছবির ক্যাপশনে নায়িকা লিখেছেন একটি গানের অংশ। তা হলো- ‘আজ এক নাম না জানা কোনো পাখি, ডাক দিলো ঠোঁটে নিয়ে খড়কুটো/ তুমি যাবে কি, বলো যাবে কি?’ মাস দুয়েক আগে রান্না করার ভিডিও শেয়ার করেছিলেন মাহি। সেখানে তিনি ড্রয়িং রুমের সোফায় বসে ভুনা খিচুড়ি রান্না করেছেন। এ ছাড়াও গেল ১৪ আগস্ট রাতে নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে বাইক চালানোর একটি ভিডিও শেয়ার করেন এই নায়িকা। ক্যাপশনে লেখেন- ‘তিনবার ঠাস করে পড়ে গেছিলাম।’ তার পোস্ট করা বিভিন্ন স্ট্যাটাস, ছবি ও ভিডিও দ্রুত নেটিজেনদের নজর কাড়ে।

নাহিদ/সা.এ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: