প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

জাহাঙ্গীর আলম ভুঁইয়া

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

সুনামগঞ্জে কবরস্থানে কান্না করছিল নবজাতক !

   
প্রকাশিত: ৮:০০ অপরাহ্ণ, ২২ জুলাই ২০২২

কবর স্থানে মৃত মানুষের দাফন করা হলেও সুনামগঞ্জের একটি কবরস্থান থেকে এক নবজাতককে উদ্ধার করা হয়েছে। কান্নার শব্দ শুনে এলাকাবাসী ওই নবজাতককে কবরস্থান থেকে উদ্ধার করে। পরে নবজাতকটিকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে কে বা কারা নবজাতককে ফেলে গেছে বা কে এই শিশুটির মা বাবা তার কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে সুনামগঞ্জ শহরতলির ইব্রাহিমপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এই বিষয়টি পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানানো হয়েছে। শিশুটি কোথায় থাকবে,সে বিষয়ে উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা সিদ্ধান্ত নেবেন। কবরস্থানের পাশের বাসিন্দা তাছলিমা আক্তার বলেন, রাতে হঠাৎ করে নবজাতকের কান্না কানে আসছিল। এগিয়ে গিয়ে দেখতে পাই, একটি নবজাতককে কবরস্থানের মধ্যে ফেলে রাখা হয়েছে। নবজাতকটি উচ্চস্বরে কাঁদছিল। কান্নার শব্দ শুনে গ্রামের আরও লোকজন জড়ো হয়। এরপর সকলে মিলে নবজাতকটিকে সেখান থেকে উদ্ধার করে পুলিশে খবর দেয়।

স্থানীয় ইউপি সদস্য গিয়াস উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, নবজাতকটিকে উদ্ধার করার পর সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। শিশুটির জন্য যা যা প্রয়োজন সবই করবেন তারা। প্রয়োজনে নবজাতকটি তার সন্তানের পরিচয়ে বড় হবে বলে জানান তিনি।

সুনামগঞ্জ সদর থানার এএসআই সোহেল আহমদ জানান, খবর পেয়ে নবজাতকটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসাসহ প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। পুলিশ সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রেখে সব ধরণের সহায়তা করছে। এখন পর্যন্ত কেউই শিশুটি মা বাবা পরিচয় স্বীকার করে নি। সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালের মা ও শিশু ওয়ার্ডে রাতে দায়িত্ব পালনকারী স্মৃতি আক্তার জানান, শিশুটি বর্তমানে সুস্থ রয়েছে। হাসপাতালে ভর্তি হওয়া এক নারীর দুধ খাওয়ানো হচ্ছে তাকে।

সালাউদ্দিন/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: