প্রচ্ছদ / জাতীয় / বিস্তারিত

ব্যাংকগুলোকে বিদ্যুৎ-জ্বালানিতে ব্যয় কমানোর নির্দেশ

   
প্রকাশিত: ৫:৫৮ অপরাহ্ণ, ২৬ জুলাই ২০২২

বর্তমান পেক্ষাপটে জ্বালানি সাশ্রয়ে লক্ষ্যে কেন্দ্রীয় ব্যাংক বিদ্যুৎ ও জ্বালানির ব্যয় কমা‌নোর নির্দেশ দি‌য়ে‌ছে ব্যাংকগু‌লোকে। আগামী এক বছ‌রে ব্যাংকগু‌লোর জ্বা‌লা‌নি তেল ও গ্যাস ২০ শতাংশ ও বিদ্যুতে ২৫ শতাংশ খরচ কমা‌তে হ‌বে। আজ মঙ্গলবার (২৬ জুলাই)  বাংলা‌দেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ এ সংক্রান্ত নির্দেশনা দি‌য়ে ব্যাংকগু‌লো‌তে চি‌ঠি দি‌য়ে‌ছে।

নতুন এই নি‌র্দেশনা অনুযায়ী, ছয় মাস ক‌রে দুই ধাপে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি ব্যয় কমা‌তে হ‌বে। সাশ্রয়ী অর্থ আর্থিক বিবরণী‌তে দেখা‌তে হ‌বে। এ টাকা অন্য কো‌নো খা‌তে খরচ করা যা‌বে না। এছাড়া  নির্দেশনায় আরো বলা হ‌য়ে‌ছে, বর্তমান বৈশ্বিক অর্থনৈতিক অবস্থার প্রেক্ষাপটে সরকারের সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে ২০২২ সা‌লের শেষ ৬ মাস (জুলাই থেকে ডিসেম্বর) এবং ২০২৩ সা‌লের প্রথম ৬ মাস (জানুয়ারি থে‌কে জুন) সময়ে ব্যাংকগু‌লোর ব্যয় কমা‌নোর জন্য বিদ্যুৎ ও জ্বালানির সাশ্রয়ী ব্যবহার নিশ্চিত কর‌তে হবে।

এছাড়া  জ্বালানি (পেট্রোল, ডিজেল, গ্যাস ইত্যাদি), ওয়েল ও লুব্রিকেন্টের বরাদ্দকৃত অর্থ থেকে ব্যয় ন্যূনতম ২০ শতাংশ সাশ্রয় করতে হবে। এ লক্ষ্যে চলতি বছরের অবশিষ্ট ৬ মাসে ১০ শতাংশ এবং ২০২৩ সা‌লের প্রথম ৬ মাসে ১০ শতাংশ ব্যয় কমা‌তে হবে। বিদ্যুৎ খাতে বরাদ্দ করা অর্থের ২৫ শতাংশ সাশ্রয় করতে হবে। এ লক্ষ্যে চলতি বছরের অবশিষ্ট ৬ মাসে এবং ২০২৩ বছরের প্রথম ৬ মাসে আনুপাতিক হারে ব্যয় হ্রাস করতে হবে। সাশ্রয় করা অর্থ অন্য কোনো খাতে বরাদ্দ বা ব্যয় করা যাবে না।

ব্যয় কমা‌নোর তথ্য ও দলিলাদি ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে সংরক্ষণ করতে হবে এবং সংশ্লিষ্ট ব্যাংক পরিদর্শনকালে নিরীক্ষার নিমিত্তে বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিদর্শকদের চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে সরবরাহ করতে হবে। নির্দেশনার ক্ষেত্রে চল‌তি বছ‌রের জুলাই থে‌কে ডিসেম্বর পর্যন্ত সময়ের ব্যয়িত অর্থ ডিসেম্বর ২০২২ এর আর্থিক বিবরণী এবং ২০২৩ সা‌লের জানুয়ারি থে‌কে জুন পর্যন্ত সময়ের ব্যয়িত অর্থ ডিসেম্বর ২০২৩ এর আর্থিক বিবরণীতে যুক্ত কর‌তে হবে।

রেজানুল/সা.এ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: