প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

ডি এইচ মান্না

সিলেট প্রতিনিধি

জনগণের ক্ষমতা, জনগণের হাতে ফিরিয়ে দিন: সিলেটে মঈন খান

   
প্রকাশিত: ১০:৪১ অপরাহ্ণ, ৩০ জুলাই ২০২২

বিদ্যুতের ঘন ঘন লোডশেডিং ও জ্বালানি খাতে অব্যবস্থাপনার প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে সারাদেশের ন্যায় সিলেট ও বিক্ষোভ সমাবেশ কর্মসূচী পালন করেছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি)। শনিবার (৩০ জুলাই) বিকেলে সিলেট মহানগর বিএনপির কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে এ কর্মসূচী পালন করে।

এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনপির স্থানীয় কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান বলেছেন, আমাদের একটাই দাবি, সরকার পদত্যাগ করুক। তত্ত্বাবধায়ক সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করুন। দেশে একটি গ্রহণযোগ্য নির্বাচন দিয়ে জনগণের ক্ষমতা, জনগণের হাতে ফিরিয়ে দিন। আজ দেশের অবস্থা খুবই করুন। এখন মানুষের ভোটের অধিকার নেই। মানুষ আর সহ্য করতে পারছে না। তাই মানুষ আর এই সরকার চায় না। আওয়ামী লীগের পতন ঘণ্টা বাজতে শুরু করেছে।

দেশে ঘন ঘন লোডশেডিং চলছে জানিয়ে সাবেক মন্ত্রী ড. আব্দুল মঈন খান বলেন, আমাদের বিদ্যুৎ নেই। মা বোনরা হারিকেন নিয়ে রাস্তায় আন্দোলন করেন, সরকার কি এসব দেখে না। তারা (আওয়ামী লীগ) এখন এসব না দেখে হাজার হাজার কোটি টাকা লুট করেছে।

তিনি আরও বলেন, বিএনপি যখন ক্ষমতায় ছিল তখন ৩.৪০ পয়সা ইউনিটে বিদ্যুৎ দিয়েছিল। আর আজ ৩.৪০ পয়সার বিদ্যুৎ আজ ১২ টাকা ৪০ পয়সা। তার পরও দেশের মানুষ বিদ্যুৎ পাচ্ছেনা। চার গুন বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধির পরেও কেন সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়, কেন লোডশেডিং হয়? এর মুলে হচ্ছে দুর্নীতি। পাকিস্তানে ২২ টি পরিবার দেশের সম্পদ লুটপাট করে দেশকে ধ্বংস করে দিয়েছিল আর আমদের দেশে সরকারের মদদপুষ্ট ২২০ পরিবার লুটপাট করেছে। তার বিচার একদিন হবে।

সিলেট মহানগর বিএনপির আহবায়ক আব্দুল কাইয়ুম জালালি পংকী সভাপতিত্বে ও যুগ্ম আহবায়ক ও সিসিক কাউন্সিল রেজাউল হাসান কয়েস লোদীর সঞ্চালনায় বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন- বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির, কেন্দ্রীয় সদস্য সিসিকি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, সিলেট জেলা বিএনিপির সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম এবং সাধারণ সম্পাদক এমরান আহমদ চৌধুরী প্রমুখ।

সালাউদ্দিন/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: