প্রচ্ছদ / জাতীয় / বিস্তারিত

পদ্মা-মেঘনা-সাঙ্গু-হালদা নাম পেলো চার শাবক

   
প্রকাশিত: ১২:৩০ পূর্বাহ্ণ, ২ আগস্ট ২০২২

চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায় জন্ম নেওয়া ‘রাজ-পরী’ দম্পতির চার সন্তানের নাম রাখা হয়েছে পদ্মা, মেঘনা, হালদা ও সাঙ্গু। গতকাল সোমবার (১ আগস্ট) দুপুরে চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানা পরিদর্শনকালে সদ্য জন্ম নেওয়া এ চার সাদা শাবকের নামকরণ করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মমিনুর রহমান। নদীর নামে শাবকগুলোর নাম রাখা হয় বলে জানান জেলা প্রশাসক।

তিনি জানান, চট্টগ্রামের গুরুত্বপূর্ণ দুটি নদী হালদা ও সাঙ্গু। এছাড়া মেঘনা ও পদ্মা বাংলাদেশের বড় নদী। তাই দেশের গুরুত্বপূর্ণ নদীগুলোর সঙ্গে মিল রেখে চারটি সাদা বাঘ শাবকের নাম পদ্মা, মেঘনা, হালদা ও সাঙ্গু রাখা হয়েছে। এর আগে শনিবার (৩০ জুলাই) চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায় ‘রাজ-পরী’ দম্পতির ঘরে জন্ম নেয় চার সাদা বাঘ শাবক। এ নিয়ে শুধু চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায়ই সাদা বাঘের সংখ্যা পাঁচ। বর্তমানে মোট বাঘের সংখ্যা ১৬টি।

এই বিষয়ী ডেপুটি কিউরেটর শাহাদাত হোসেন শুভ বলেন, চিড়িয়াখানায় জন্ম নেওয়ার পর বাচ্চাদের দুধ দেয় না বাঘিনী। তবে এখানে ব্যতিক্রম দেখা যাচ্ছে। জন্মের কয়েক ঘণ্টা পর থেকে নতুন জন্ম নেওয়া শাবকগুলোকে তাদের মা দুধ দিচ্ছে। বর্তমানে শাবকগুলো তাদের মায়ের সঙ্গে আছে। তাদের লিঙ্গ নির্ধারণ করা যায়নি। তিনি বলেন, শাবকগুলো তাদের মায়ের সঙ্গে থাকলেও ক্লোজ মনিটরিংয়ে রাখা হয়েছে। খাঁচায় সিসিটিভি ক্যামেরা সংযুক্ত করা হয়েছে। সিসিটিভি ক্যামেরার মাধ্যমে তাদের নজরে রাখা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, গত শনিবার (৩০ জুলাই)  চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায় রাজ-পরী দম্পতি একসাথে চারটি সাদা বাঘ শাবক জন্ম দেয়। ২০১৬ সাল থেকে চিড়িয়াখানায় পরীর সঙ্গী বাঘ রাজ। দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে ৩৩ লাখ টাকা দিয়ে ১১ ও ৯ মাস বয়সী দুটি রয়েল বেঙ্গল টাইগার আনা হয়। এরপর পুরুষটির রাজ ও মাদিটির নাম পরী দেওয়া হয়। ২০২১ সালের ৬ মে রাজ-পরীর মাধ্যমে প্রথমবারের মতো তিনটি সাদা শাবকের জন্ম হয়।

রেজানুল/সা.এ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: