প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

কামরুজ্জামান জসিম

মোংলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি

বাঘের আক্রমণ থেকে বেঁচে ফেরা মায়া হরিণ চিকিৎসার পর অবমুক্ত

   
প্রকাশিত: ৩:৪৭ অপরাহ্ণ, ৩ আগস্ট ২০২২

সুন্দরবনে বাঘের আক্রমণের শিকার হওয়া একটি মায়া হরিণকে (বার্কিং ডিয়ার) লোকালয় থেকে উদ্ধার করছে বন বিভাগ। গত সোমবার (১ আগষ্ট) সন্ধ্যায় সুন্দরবন সংলগ্ন বরইতলা গ্রামের আ. মান্নানের বাড়ি থেকে আহত হরিণটি উদ্ধার করে বন বিভাগ, ভিটিআরটি ও সিপিজির সদস্যরা।

পরে আজ বুধবার (৩ আগষ্ট) দুপুরে বনরক্ষীরা নিবিড় পর্যবেক্ষণ ও প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে বনে অবমুক্ত করে দেন মায়া হরিণটিকে।

বনবিভাগ সূত্রে জানা যায়, সুন্দরবনে বাঘের থাবা খেয়ে সোমবার সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে একটি মায়াহরিণ বন সংলগ্ন বরইতলা গ্রামে চলে আসে। পরে হরিণটি ওই এলাকার মান্নানের বাড়িতে ঢুকলে তার বাড়ির সীমানার বেড়ার জালে আটকে পড়ে। পরে খবর পেয়ে বনবিভাগ, ভিটিআরটি ও সিপিজির সদস্যরা ঘটনাস্থল থেকে হরিণটি উদ্ধার করেন। সেখান থেকে হরিণটি উদ্ধার করে করমজল বন্যপ্রানী প্রজনন কেন্দ্র ফরেস্ট অফিসে নিয়ে যাওয়া হয়।

উদ্ধার হওয়া আহত মায়া হরিণটি পুরুষ এবং এর বয়স ৪-৫ বছর। বাঘের থাবায় হরিণটির ডান শিং, ডান পা ও ডান পাশের পিছনের রানের ওপর মারাত্মক ক্ষত হয়েছে।

ফরেস্ট অফিসে মায়া হরিণটিকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে সুস্থ করে তোলেন পুর্ব সুন্দরবনের করমজল বন্যপ্রাণী বিশেষজ্ঞরা।

করমজল বন্যপ্রানী প্রজনন কেন্দ্রের প্রাণী বিষেশজ্ঞ হাওলাদার আজাদ কবির জানান, উদ্ধার করা হরিণটিকে দুপুর আজ ১২টার দিকে করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রের বনে অবমুক্ত করা হয়।

তিনি বলেন, এর আগেও বেশ কয়েকটি হরিণ বাঘের আক্রমণ থেকে ছুটে এসে লোকালয়ে আশ্রয় নিলে সেগুলোকেও প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বনে অবমুক্ত করা হয়েছে।

শাকিল/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: