প্রচ্ছদ / রাজনীতি / বিস্তারিত

ড. কামালকে ‘ইমাম বানানো’ ভুল ছিল: মোশাররফ

   
প্রকাশিত: ৬:১৫ অপরাহ্ণ, ৩ আগস্ট ২০২২

ফাইল ছবি

জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন। জনপ্রিয়তার তুঙ্গে থাকা সত্ত্বেও ২০১৮ সালের নির্বাচনের আগে ড. কামাল হোসেনকে ‘ইমাম’ বানানো ভুল ছিল বলে মন্তব্য করেন খন্দকার মোশাররফ হোসেন।

বুধবার (৩ আগস্ট) জাতীয় প্রেস ক্লাবে ‘সরকার ইভিএম-এ নির্বাচন করতে চায় কেন?’ বিষয়ে এক গোলটেবিল আলোচনায় বিষয়টি নিয়ে কথা বলেন তিনি। আলোচনায় অন্যান্য নানা বিষয়ের সঙ্গে ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বরের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির জোট জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ভরাডুবি নিয়ে অন্যান্য নানা বিষয়ের সঙ্গে মোশাররফ হোসেন।

খন্দকার মোশাররফ বলেন, ‘বিএনপির মতো একটি জনপ্রিয় দল গিয়ে ড. কামাল হোসেনকে ইমাম বানিয়েছিল। কিন্তু নির্বাচনের আগে, তিনি বললেন নির্বাচনই করবেন না। এই ফ্রন্টে আমরা এত কষ্ট করে যে রূপরেখা বানালাম, ড. কামাল হোসেনের নির্বাচন না করার কারণে ভবিষ্যৎ চিন্তাভাবনা সেদিন ধূলিসাৎ হয়ে গেছে। ফলে বিএনপির মতো একটি দলকে এই ফ্যাসিবাদ সরকার পাঁচ বা ছয়টি আসন দিয়ে বিদায় করে দেয়।’

তিনি বলেন, এবার বিরোধী সব রাজনৈতিক দলের সঙ্গে সংলাপ হচ্ছে। কারণ সব দলকে যাচাই-বাছাই করে নিচ্ছে বিএনপি। সামনে সবাইকে নিয়ে বৃহত্তর আন্দোলনে যাবো আমরা। আমরা যাদের সঙ্গে সংলাপ করছি, তারা সবাই সরকার পতনের আন্দোলনের বিষয়ে একমত।

আন্দোলনের জন্য জনগণ মুখিয়ে আছে বলেও মনে করেন বিএনপির এই নেতা। বলেন, ‘এখন শুধু রাস্তায় মানুষের ঢল নামা বাকি। আমরা রাস্তায় সংকটের সমাধান করব ইনশাআল্লাহ। সেই ইতিহাস ও অভিজ্ঞতা আমাদের আছে। ইয়াহিয়া খানের মতো শাসক টিকতে পারেনি। সুতরাং কারফিউ বা অন্য কোনোভাবেই ক্ষমতা রক্ষা করতে পারবেন না। রাস্তায় নামলে তদের পতন হবেই হবে। শ্রীলঙ্কায় দুই ভাই ১৮ বছর শাসন করেও শেষ রক্ষা হয়নি। অতএব রাস্তায় নামার বিকল্প নেই। মানুষ দুরবস্থার মধ্যে আছে। তারা একটা পরিবর্তন চায়। সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে রাস্তায় নামতে হবে।’

তুহিন/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: