প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

মোঃ শাকিল শেখ

সাভার করেসপন্ডেন্ট

পরিত্যক্ত ডোবায় পড়ে থাকা নবজাতকের দায়িত্ব নিতে চান স্থানীয় যুবক

   
প্রকাশিত: ৫:৪৩ অপরাহ্ণ, ৩ আগস্ট ২০২২

সাভারের আশুলিয়ায় পরিত্যক্ত এক ডোবা থেকে অজ্ঞাত পরিচয়ের জীবিত এক ছেলে নবজাতককে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছেন স্থানীয় এক যুবক। বর্তমানে নবজাতক ওই শিশুটি সুস্থ আছে বলে জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। তবে ঐ নবজাতকের সম্পূর্ণ দায়িত্বভার গ্রহণ করতে চান স্থানীয় আব্দুল্লাহ আল নোমান ভূইয়া নামে এক ব্যক্তি।

মঙ্গলবার (২ আগস্ট) রাত ৯টার দিকে আশুলিয়ার ঘোষবাগের সোনিয়া মার্কেট এলাকার রিপন সিকদারের বাড়ির পেছনের এক পরিত্যক্ত ডোবা থেকে ওই নবজাতককে উদ্ধার করা হয়। স্থানীয়রা জানান, রাত ৯টার দিকে স্থানীয় রিপন সিকদারের বাড়ির পেছনের পরিত্যক্ত এক ডোবা থেকে শিশুর কান্না শুনতে পাওয়া যায়। পরে বাড়ির পেছনে গিয়ে একটি জীবিত ছেলে নবজাতকে পাওয়া যায়। এসময় নবজাতকে উদ্ধার করে স্থানীয় নারী ও শিশু স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে।

নবজাতক উদ্ধারকারী যুবক মহিবুর রহমান বাবু বলেন, রাত প্রায় নয়টার দিকে আমাদের বাসার ভাড়াটিয়া বলতেছে পিছনে কার যেনো ছোট বাবু কান্না করতেছে। পরে আমিসহ আশেপাশের সবাই গিয়ে দেখি একটা শিশু পরিত্যক্ত ডোবায় পড়ে কান্নাকাটি করছে। শিশুটিকে নিয়ে আমি নারী ও শিশু স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করি। তখন ঐ শিশুটি অনেক অসুস্থ ছিলো। বর্তমানে নিবিড় যত্নে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সুস্থ আছে।

নবজাতকের সম্পূর্ণ খরচ বহনকারী আব্দুল্লাহ আল নোমান ভূইয়া বলেন, আমার ভাতিজা বাবু গতকাল রাতে পরিত্যক্ত ডোবা থেকে একটা নবজাতককে উদ্ধার করে নারী ও শিশু স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি। পরে আমি খবর পেয়ে হাসপাতালে এসে শিশুটির যাবতীয় খরচ আমি নিজেই বহন করছি। বর্তমানে সিসিইউ তে ভালো ট্রিটমেন্ট হচ্ছে এবং সুস্থ আছেন। তাই ইচ্ছা পোষণ করছি যে বাচ্চাটিকে লালন পালনের দায়িত্ব নিতে চাই?

এবিষয়ে নারী ও শিশু স্বাস্থ্য কেন্দ্রের ম্যানেজার হারুন-অর-রশিদ বলেন, রাত ৯টার দিকে একটি নবজাতককে হাসপাতালে আনেন স্থানীয়রা। নবজাতকটি সদ্য ভুমিষ্ট বলে ধারণা করা হচ্ছে। বর্তমানে শিশুটি সুস্থ রয়েছে। এছাড়া নবজাতক পাওয়া যাবার বিষয়টি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে উপজেলা সমাজসেবা বিভাগকে জানিয়ে রাখা হয়েছে বলেও জানান হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

এব্যাপারে আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইউনুস আলী বলেন, আমরা খবর পেয়ে নবজাতকের খোঁজ খবর নিয়েছি। বর্তমানে শিশুটি সুস্থ আছে। নবজাতকটি নুর মোহাম্মদ ও রিপন সিকদারের জিম্মায় রয়েছে।

সালাউদ্দিন/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: