প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

আনু হাসান

গাজিপুর প্রতিনিধি

প্রেম করে বিয়ে, ২ মাসেই সব শেষ

   
প্রকাশিত: ১১:০২ পূর্বাহ্ণ, ৫ আগস্ট ২০২২

ছবি: সংগৃহীত

দুই মাস যেতে না যেতেই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে দেখা দেয় কলহ। প্রায়ই তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হতো। গত ২৮ জুন সকালে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কথা কাটাকাটি ও হাতাহাতি হলে স্ত্রী স্মৃতিকে শ্বাসরোধে হত্যা করে পালিয়ে যান স্বামী জাহিদুল।

অভিযোগে দেড় মাস পর প্রধান আসামি স্বামী জাহিদুল ইসলামকে (২৭) গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১। বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) বিকালে ঢাকার ধানমন্ডি থানার গ্রিন রোড (কাঁঠালবাগান) এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে। জাহিদুল ইসলাম শ্রীপুর পৌরসভার কেওয়া পশ্চিমখণ্ড এলাকার সবুর উদ্দিনের ছেলে। নিহত খাদিজা তার স্ত্রী ছিলেন। বিয়ের মাস দুয়েক পরই স্ত্রীকে হত্যা করেন।

র‌্যাব-১ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) এএসপি নোমান আহমেদ জানান, স্মৃতির সঙ্গে জাহিদুলের এক বছরের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। গত ঈদুল ফিতরের আগের দিন তারা পারিবারিকভাবে বিয়ে করেন। বিয়ের পর থেকে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কলহ বাধে। স্ত্রীর অনৈতিক সম্পর্ক আছে বলে সন্দেহ করেন স্বামী।

র‍্যাবের এই কর্মকর্তা আরও জানান, এ নিয়ে তাদের মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া লেগে থাকে। ঘটনাটি জাহিদুল তার শাশুড়িকে জানালে উল্টো শাসিয়ে দেন। এর জেরে গত ২৮ জুন সকালে তাদের মধ্যে পুনরায় ঝগড়া ও হাতাহাতি হয়। এক পর্যায়ে স্বামী তার স্ত্রী স্মৃতিকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে পালিয়ে যান। ঘটনার পর ভুক্তভোগীর পরিবার শ্রীপুর থানায় মামলা করে। পরে প্রকৃত ঘটনা উদঘাটনে র‌্যাব-১ ছায়া তদন্ত শুরু করে এবং ঘটনাটি হত্যাকাণ্ড হতে পারে ধারণা করে গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করে। এরপর জাহিদুলকে ঢাকা থেকে গ্রেফতার করে।

তুহিন/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: