প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

মো. আমজাদ হোসেন রতন

নাগরপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি

নাগরপুরে শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের ৭৩ তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন

   
প্রকাশিত: ৮:০৪ অপরাহ্ণ, ৫ আগস্ট ২০২২

টাঙ্গাইলের নাগরপুরে বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের ৭৩ তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন করা হয়েছে। শুক্রবার (৫ আগস্ট) জন্মবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে উপজেলা হল রুমে প্রশাসন এ অনুষ্ঠানের আয়োজনে করে। অনুষ্ঠান সমুহের মধ্যে ছিল আলোচনা সভা, যুব ঋন সহ গাছের চারা ও পুরস্কার বিতরণ। সকালে উপজেলা প্রশাসন ও নাগরপুর থানা পুলিশ শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামাল এর জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে স্মরক-৭১ প্রাঙ্গণে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধাঞ্জলী অর্পন করেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার ওয়াহিদুজ্জামান এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় স্মৃতিচারণ করেন, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. ইকবাল হোসেন, নাগরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি মো. সাজ্জাদ হোসেন, পাকুটিয়া ইউপি চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. সিদ্দিকুর রহমান প্রমুখ।

এ সময় বক্তারা বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠ পুত্র, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সংগঠক বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামাল বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে মুক্তিবাহিনীর অন্যতম সংগঠক ছিলেন। ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ কালরাতে পাকিস্থানি হানাদার বাহিনী জাতির পিতাকে আটক করে পাকিস্থানে নিয়ে যাওয়ার পর মা-মাটি-মাতৃভূমির সমভ্রম রক্ষায় মুক্তিযুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়েন তিনি। স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম ওয়ার কোর্সে প্রশিক্ষণ নিয়ে মহান মুক্তিযুদ্ধের প্রধান সেনাপতি জেনারেল আতাউল গনি ওসমানীর এডিসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন তিনি।

সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য পুত্র বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের হাত ধরে স্বাধীন বাংলাদেশে আধুনিক ফুটবলের যাত্রা শুরু হয়। খেলাধুলার প্রতি প্রচন্ড আবেগ থেকে আবাহনী ক্রীড়াচক্র প্রতিষ্ঠা করেন। তিনি নিজেও ছিলেন একজন কৃতি ক্রীড়াবিদ। খেলতেন ফুটবল, ক্রিকেট, বাস্কেটবল আর ভলিবল।

শুধু খেলাধুলা নয়- বিতর্ক, অভিনয়, উপস্থিত বক্তৃতা থেকে শুরু করে সাংস্কৃতিক অঙ্গনে ছিল তাঁর সফল পদচারণা। ‘স্পন্দন শিল্পী গোষ্ঠী’ প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে তিনি বাংলা গানে সৃষ্টি করে ছিলেন নতুন এক ধারা। এ সময় উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা সহ পেশা জীবির মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

সালাউদ্দিন/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: