প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

প্রেমিকের মৃত্যুর খবর শুনে হাসপাতালে ভর্তি প্রেমিকা

   
প্রকাশিত: ৯:৫০ পূর্বাহ্ণ, ৮ আগস্ট ২০২২

ছবি: সংগৃহীত

প্রেমিকার স্বজনদের মারপিটের অপমান সহ্য করতে না পেরে মহিম হোসেন ফরাজি (১৭) নামে এক কিশোর ফাঁস দিয়ে আত্যহত্যা করেছেন। এ খবর শুনতে পেয়ে তার প্রেমিকা (১৪) হাত কেটে ও তুঁতে খেয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। রবিবার (৭ আগস্ট) যশোর শহরের পূর্ব বারান্দীপাড়া বউবাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত মহিম হোসেন ফরাজি তোরাব আলী ফরাজির ছেলে। তার প্রেমিকাও একই এলাকার বাসিন্দা। সোমবার (৮ আগস্ট) সকালে যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) বিমান তরফদার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মাহিমের আত্মীয় মমিনুর রহমান জানান, শনিবার দুপুরে মহিম প্রেমিকার সঙ্গে দেখা করতে তার বাড়ির সামনে যায়। এ সময় প্রেমিকার স্বজনরা মহিমকে ধরে মারপিট করে। এ অপমান সহ্য করতে না পেরে রোববার ভোরে নিজ বাড়িতে কাঁঠাল গাছের সঙ্গে ফাঁস দিয়ে মারা যায় মাহিম। এদিকে রবিবার দুপুরে দিকে মহিমের মৃত্যুর খবর জানতে পারে প্রেমিকা। সে সময় সেও আত্মহত্যার চেষ্টা করে। অসুস্থ অবস্থায় তাকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মেডিসিন ওয়ার্ডের বিশেষজ্ঞ ডা. আবু হায়দার মোহাম্মাদ মনিরুজ্জামান বলেন, প্রেমিকা সামান্য তুঁতে খাওয়ায় শরীরে বিষ ছড়াতে পারেনি। ব্যবস্থাপত্র দেওয়া হয়েছে। দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবে আশা করি। যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) বিমান তরফদার বলেন, মৃত মহিম হোসেনের ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে। তার শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। তার পরিবারের দাবি, প্রেমঘটিত কারণে মহিম আত্মহত্যা করেছে। বাকিটা ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে জানা যাবে।

ইমদাদ/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: