প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

আব্দুল ওয়াদুদ

বগুড়া প্রতিনিধি

অবৈধভাবে মজুত করা ১৬ হাজার বস্তা সার জব্দ, গুদাম সিলগালা

   
প্রকাশিত: ১:০৯ অপরাহ্ণ, ৮ আগস্ট ২০২২

ছবি: সংগৃহীত

নাজমুল পারভেজ কনক নামের এক ব্যাক্তির গুদাম থেকে অবৈধভাবে মজুত করা প্রায় ১৬ হাজার বস্তা সরকারি রাসায়নিক সার জব্দ করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। জব্দকৃত সারের মধ্যে অন্তত পাঁচ হাজার বস্তা সার এরই মধ্যে নষ্ট হয়ে গেছে। এ ঘটনায় সিলগালা করা হয়েছে ওই গুদাম। এ সময় গুদামে থাকা দুটি ট্রাকও জব্দ করা হয়েছে। রবিবার (৭ আগস্ট) রাত সাড়ে ১১টা বগুড়া সদর উপজেলার এরুলিয়ায় উচ্চ বিদ্যালয়ের সংলগ্ন মঞ্জু-করিম ট্রেডার্সের গোডাউনে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, গোডাউনের মালিক শহরের বড়গোলা এলাকার ব্যবসায়ী। এই অভিযানের সময় অবৈধ মজুতকারী নাজমুল পারভেজ কনক উপস্থিত ছিলেন না। তাকে ধরতে ভ্রাম্যমাণ আদালত তার বাড়িসহ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালায়। তিনি পলাতক রয়েছেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও বগুড়া সদর নির্বাহী অফিসার সমর কুমার পাল জানান, বগুড়া সদর উপজেলায় ২২ জন সার বিক্রয়কারী ডিলার রয়েছেন, তার মধ্যে নাজমুল পারভেজ কনকের নাম নেই। তিনি দীর্ঘদিন ধরে অবৈধভাবে ডিএপি ও ইউরিয়া সার মজুত করে আসছেন এমন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানে গোডাউন ভর্তি অবৈধভাবে মজুত করা আনুমানিক ১৬ হাজার বস্তা ডিএসপি ও ইউরিয়া সার জব্দ করা হয়। এ ছাড়া দুটি ট্রাক যার একটি সম্পূর্ণ ভর্তি এবং একটি খালি ট্রাকও জব্দ করা হয়েছে। শেষে পুরো গোডাউন সিলগালা করা হয়েছে।

ইউএনও আরও জানান, এই গোডাউনের মালিক সার মজুত করে বগুড়ার ১২টি উপজেলা এবং নওগাঁর বিভিন্ন এলাকায় সার বিক্রি করে আসছিলেন। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। ঐ গুদামের মালিক গত ১৫/২০ দিন আগে থেকে তার গুদামে সার মজুত করে আসছিল। কৃত্তিম সংকট সৃষ্টি করে এই সব সার পরে উচ্চমূল্যে বিক্রি করার পরিকল্পনা ছিল তার। অভিযানে বগুড়া সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) নুরুল ইসলাম, এরুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আতিকুর রহমান আতিকসহ আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

ইমদাদ/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: