প্রচ্ছদ / বিনোদন / বিস্তারিত

স্কুলের বেতন দিতে পারতেন না বাবা, বলতে গিয়ে কাঁদলেন আমির

   
প্রকাশিত: ৫:৫২ অপরাহ্ণ, ৮ আগস্ট ২০২২

বলিউডের ‘মিস্টার পারফেকশনিস্ট’ খ্যাত নায়ক আমির খান। সময়ের পরিক্রমায় নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেতা হিসাবে। উপহার দিয়েছেন অসংখ্য জনপ্রিয় চলচ্চিত্র। প্রতিটি চলচ্চিত্রে তাকে দেখা যায় একেবারেই নতুন চরিত্রে।

তবে জানলে অবাক হবেন জীবনের শুরুটা এত সহজ ছিলো না আমিরের। খুব অল্প বয়সেই অনেক কিছু সহ্য করতে হয়েছে তাকে। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে এই সহল  অভিনেতা  জানিয়েছেন, স্কুলে থাকার সময় তার ও তার ভাইবোনদের বেতন দিতে দেরি হতো। আর এ নিয়ে কতটা ভয়ে ভয়ে থাকতেন।

সাক্ষাৎকারে আমির বলেছিলেন সেই ৮টা বছরের কথা। যখন তাদের পরিবারের খুব টানাটানি চলছিল। সেই সময় স্কুলের বেতন দিতেও দেরি হয়ে যেতো। এই অভিনেতা আরো জানান, তাদের স্কুলের ফি ছিল কিছুটা এরকম-ক্লাস সিক্সে ৬ টাকা, সেভেনে ৭ টাকা, ক্লাস এইটে ৮ টাকা। তা সত্ত্বেও আমির ও তার ভাইবোনরা ‘সময়ে বেতন দিতে পারতেন না’।এক-দুবার সাবধান করে দেওয়ার পর, প্রিন্সিপাল তাদের নাম ঘোষণা করে দিতো অ্যাসেম্বলিতে, গোটা স্কুলের সামনে। এই কথা বলতে গিয়ে সেই সাক্ষাৎকারে কেঁদেও ফেলেন আমির।

প্রসঙ্গত,  বলিউডের প্রযোজক তাহির হুসেন আর তার স্ত্রী জিনাত হুসেনের ছেলে আমির। চার ভাইবোন ফয়সাল, ফারহাত আর নিখাতের মধ্যে তিনিই বড়। ১৯৭৩ সালে ‘ইয়াদো কা বারাত’ ছবি দিয়ে আমিরের ক্যারিয়ারের শুরু। এরপর বড় হয়ে ১৯৮৮ সালে ‘কেয়ামত সে কেয়ামত তাক’-এ কাজ করেন জুহি চাওলার বিপরীতে। তাহির আমির খানের একটি ছবিই প্রযোজনা করেছিলেন, আর তা হল ১৯৯০ সালে ‘তুম মেরে হো’।

বলিউডে দীর্ঘ ক্যারিয়ারে যেমন একাধিক অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন, তেমন হিট ছবির লিস্টও লম্বা আমিরের। এগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য-‘দিল’, ‘রাজা হিন্দুস্তানি’, ‘সরফরোশ’, ‘রং দে বাসন্তি’, ‘লাগান’, ‘তারে জমিন পার’, ‘গজনি’, ‘থ্রি ইডিয়টস’, ‘ধুম ৩’, ‘পিকে’, ‘দঙ্গল’ প্রভৃতি।

রেজানুল/সা.এ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: