প্রচ্ছদ / সারাবিশ্ব / বিস্তারিত

কথা বলতে পারছেন না সালমান রুশদি, হারাতে পারেন চোখ

   
প্রকাশিত: ৯:৪৯ পূর্বাহ্ণ, ১৩ আগস্ট ২০২২

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক রাজ্যে দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে আহত ব্রিটিশ ঔপন্যাসিক সালমান রুশদির অবস্থা আশঙ্কাজনক। বর্তমানে সেখানকার একটি হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে আছেন তিনি। এছাড়া ৭৫ বছর বয়সি এই  ভারতীয় বংশোদ্ভুত বৃটিশ-অ্যামেরিকান লেখক সালমান রুশদির ওপর হামলার অভিযোগে আটক ব্যক্তির পরিচয় প্রকাশ করেছে পুলিশ। ২৪ বছর বয়সী হাদি মাতার নিউ জার্সির বাসিন্দা। হামলাকারীর উদ্দেশ্য সম্পর্কে এখনো কিছু জানানো হয়নি।

নিউইয়র্ক টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সালমান রুশদি ভেন্টিলেটরে আছেন। কথা বলতে পারছেন না এবং চোখ হারাতে পারেন। গতকাল শুক্রবার (১২ আগস্ট)  সন্ধ্যায় রুশদির এজেন্ট অ্যান্ড্রু ওয়াইলি বলেন, খবর ভালো নয়। সালমান বেঁচে গেলেও। এরই মধ্যে এক চোখ হারিয়েছেন সালমান। মারাত্মক জখম হয়েছে তার লিভার। ক্ষতিগ্রস্ত হাতের শিরাগুলো।

এর আগে গতকাল শুক্রবার (১২ আগস্ট) সাহিত্য বিষয়ক এক অনুষ্ঠানের মঞ্চে হামলার শিকার হন তিনি। সালমান রুশদীকে যখন শিটোকোয়া ইনস্টিটিউশনে একটি বক্তৃতার জন্য পরিচয় করিয়ে দেয়া হচ্ছিল, তখন একজন লোক মঞ্চ উঠে এই হামলা চালায়। প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, তারা এক ব্যক্তিকে দৌড়ে মঞ্চের দিকে যেতে দেখেন, এবং সালমান রুশদীকে পরিচয় করিয়ে দেয়ার সময় তিনি তাকে হয় ঘুষি মারেন এবং ছুরিকাঘাত করেন।

প্রসঙ্গত,  ১৯৮৮ সালে দ্য স্যাটানিক ভার্সেস উপন্যাস লেখার পর থেকে বছরের পর বছর প্রাণনাশের হুমকি পেয়ে আসছেন রুশদি। রুশদির চতুর্থ উপন্যাস দ্য স্যাটানিক ভার্সেস। এই বই লেখার জন্য রুশদিকে ৯ বছর আত্মগোপনে থাকতে হয়েছিল।পরাবাস্তববাদী, উত্তর-আধুনিক উপন্যাসটি কিছু মুসলমানদের মধ্যে ক্ষোভের জন্ম দিয়েছিল; যারা এর বিষয়বস্তুকে নিন্দাজনক বলে মনে করেন। ইরান ও বাংলাদেশসহ কয়েকটি মুসলিম প্রধান দেশে বইটি নিষিদ্ধও করা হয়েছিল। বইটি প্রকাশের এক বছর পর, ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ খোমেনি রুশদির মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের আহ্বান জানান । তার মাথার জন্য ৩০ লাখ ডলার পুরস্কার ঘোষণা করেছিলেন আয়াতুল্লাহ খোমেনি।

রেজানুল/সা.এ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: