প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

প্রেমের টানে এবার টাঙ্গাইলে ভারতীয় তরুণী

   
প্রকাশিত: ১১:৫৪ অপরাহ্ণ, ১৬ আগস্ট ২০২২

সম্প্রতি ভালোবাসার টানে টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলায় এসেছেন এক ভারতীয় তরুণী। পরে স্থানীয় এক পীরের নাতির সঙ্গে তার বিয়ে হয়। তবে ওই তরুণীকে কারও সঙ্গে দেখা করতে দেওয়া হচ্ছে না বলে অভিযোগ করেছেন স্থানীয়রা। প্রেমিকের নাম, মামুন (২৫)। সে কালিহাতী উপজেলার সহবতপুর ইউনিয়নের বিন্যাউড়ী গ্রামের খাদেম হোসেনের ছেলে। প্রেমিকা বিউটি খাতুন (২০) ভারতের কলকতার বর্ধমান শহরের শেখ হানিফের মেয়ে। এ নিয়ে এলাকায় চলছে নানা আলোচনা।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, প্রায় এক মাস আগে কাতার প্রবাসী মামুন (২৮) দেশে ফেরেন। এর কয়েক দিন পর এক আত্মীয়কে নিয়ে মামুন ভারতে যান। সেখান থেকে গত শুক্রবার ওই তরুণীকে নিয়ে দেশে ফেরেন তিনি। পরে গত শনিবার কোর্ট ম্যারেজ ও স্থানীয় কাজীর মাধ্যমে ওই তরুণীর সঙ্গে মামুনের বিয়ে সম্পন্ন হয়। এদিকে ভারতীয় তরুণী আসার খবরে দেখতে গেলে স্থানীয়দের তাড়িয়ে দেওয়া হয়। গণমাধ্যমকর্মীরাও ওই বাড়িতে গেলে তথ্য না গিয়ে উল্টো তাদের সঙ্গে খারাপ আচরণ করেন মামুন ও তার স্বজনরা।

এই  বিষয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য পরিতোষ চন্দ্র পাল বলেন, ‘ফেসবুকের মাধ্যমে মামুনের সঙ্গে ওই ভারতীয় তরুণীর প্রেমের সম্পর্ক হয়। পরে মামুন প্রায় এক মাস আগে প্রবাস থেকে দেশে ফেরেন। এর কিছু দিন পর মামুন ভারতে গিয়ে ওই তরুণীর পরিবারের সম্মতিতে গত শুক্রবার তাকে বাড়িতে নিয়ে আসেন। পরদিন কাজীর মাধ্যমে তাদের বিয়ে পড়ানো হয়। মামুনের দাদা পীর হওয়ায় তারা বিষয়টি নিয়ে তেমন আলোচনা করতে চাইছেন না।’ নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয় কয়েকজন জানান,পাঁচ দিন আগে মেয়েটিকে মামুন বর্ডার থেকে তাদের বাড়িতে নিয়ে আসে। তবে এ বিষয়ে কারও সঙ্গে কথা বলতে রাজি না মামুনের স্বজনরা। মূলত মামুন কাতারে থাকার সময় ফেসবুকে ওই তরুণীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বিয়ের সময় ওই তরুণীর পরিবারের কেউ উপস্থিত ছিল না।

কালিহাতী থানার ওসি মোল্লা আজিজুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ‘ভারতীয় ওই তরুণী পশ্চিমবঙ্গ থেকে বৈধ পাসপোর্ট ও ভিসা নিয়ে বাংলাদেশে এসেছে। পুলিশ সদস্যরা ওই বাড়িতে গিয়ে তথ্য সংগ্রহ করেছে। বিউটি খাতুন নামের ওই ভারতীয় তরুণীর সঙ্গে কাতার প্রবাসী মামুনের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল। এরপরই প্রেমের টানে সে মামুনের বাড়িতে আসে।’

রেজানুল/সা.এ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: