প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

গার্ডার দুর্ঘটনায় নিহত ৪ জনের দাফন সম্পন্ন

   
প্রকাশিত: ১১:২৯ পূর্বাহ্ণ, ১৭ আগস্ট ২০২২

ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীর উত্তরায় বিআরটি প্রকল্পের ক্রেন থেকে গার্ডার ছিটকে পড়ে প্রাইভেটকারে থাকা শিশুসহ পাঁচজন নিহত হওয়ার ঘটনায় চারজনের দাফন হয়েছে নিজ বাড়ি জামালপুরে। মঙ্গলবার (১৭ আগস্ট) রাত সাড়ে ১০টার দিকে মেলান্দহ উপজেলার আগ পয়লা গ্রামে ঝরনা বেগম ও তার দুই শিশুসন্তান জাকারিয়া ও জান্নাতের দাফন সম্পন্ন হয়। এ ছাড়াও ইসলামপুর উপজেলার লাউদত্ত গ্রামে রাত সাড়ে ১১টার দিকে জানাজা শেষে কনের মা ফাহিমা বেগমকে নিজ বাড়ির আঙিনায় দাফন করা হয়। এর আগে একই দিন রাত ৯টা ৩০ মিনিটে লাশবাহী গাড়িটি পৌঁছায়।

নিহত ঝরনা ও ফাহিমার বাবা আব্দুর রশিদ বলেন, আমার দুই মেয়ে আর দুই নাতি-নাতনিকে হত্যা করা হয়েছে। সরকারের কাছে আমি এর বিচার চাই। ফরেনসিক বিভাগের চিকিৎসক নাসেদ জামিল জানান, নিহত ব্যক্তিদের বিষয়ে সুরতহাল প্রতিবেদনে যা লেখা আছে, ময়নাতদন্তে তাই পাওয়া গেছে। মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এদিকে পাঁচজনের মধ্যে রুবেলকে মেহেরপুর ও বাকি চারজনকে জামালপুরে পাঠানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, সোমবার (১৫ আগস্ট) বিকেলে উত্তরা জসীমউদ্দীন এলাকায় আড়ংয়ের সামনে ক্রেন দিয়ে একটি গার্ডার ওপরে ওঠানো হচ্ছিল। এ সময় ক্রেন উল্টে সেটি প্রাইভেটকারের ওপর পড়ে। গার্ডার পড়ে প্রাইভেটকারটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়। এতে প্রাইভেটকারের ভেতরে থাকা সাতজনের মধ্যে পাঁচজন নিহত হয়। এ ঘটনায় নিহতরা হলেন- রুবেল (৬০), ফাহিমা (৪০), ঝরনা (২৮), জান্নাত (৬) ও জাকারিয়া (২)। বেঁচে যাওয়া দুইজন হচ্ছেন নবদম্পতি হৃদয় ও রিয়া মনি। গত শনিবার তাদের বিয়ে হয়।

ইমদাদ/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: