প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

আল আমিন

ফুলবাড়ীয়া (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি

শিকলবন্দী সেই কিশোরীর চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়েছে ইউএনও

   
প্রকাশিত: ৬:০৫ অপরাহ্ণ, ১৭ আগস্ট ২০২২

ছবি - সংগৃহীত

শিকলবন্দী রিতার চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। গতকাল বুধবার (১৭আগস্ট) দুপুরে চিকিৎসকসহ একটি টিম নিয়ে রিতা’ র বাড়ীতে পৌছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ নাহিদুল করিম। এসময় তাঁর খোঁজখবর নেন। তাৎক্ষণিকভাবে নগদ ১০ হাজার টাকা অর্থ সহযোগিতা ও চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন।

এর আগে মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) বিডি২৪ লাইভে “চিকিৎসার অভাবে কিশোরীকে শিকলবন্দী করে রেখেছে পরিবার” শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়। পরে বিষয়টি স্থানীয় প্রশাসনের নজরে আসে।

ময়মনসিংহের ফুলবাড়ীয়া উপজেলার আছিম পাটুলী ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডের কুটিরা গ্রামের আঃ কদ্দুছের মেয়ে ১৫ বছর বয়সী রিতার পা শিকলে বাঁধা। শিকলটির সাথে ঝুলছে ছোট্ট একটি তালা।শিকলবন্দী অবস্থায় দিনের পর দিন রাতের পর রাত কাটছে তাঁর। মেয়টির বয়স বাড়ার সাথেই আচরণ হয়ে উঠছে অস্বাভাবিক। শিকল খুললেই চলে যায় একগ্রাম থেকে আরেক গ্রাম। মানসিক বিপর্যস্ত মেয়েটির কখন কী দূর্ঘটনা ঘটে যায় এমন আতংক ও তাঁর উশৃংখলতায় পরিবারের সবাইকে সব সময় সতর্কতার মধ্যেই থাকতে হয়। এভাবেই দীর্ঘ ৬/৭ বছর ধরে শিকলবন্দি অবস্থায় দিন কাটছে রিতার জীবন।

ফুলবাড়ীয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ নাহিদুল করিম জানান, আমাদের ধারণা মেয়েটি অটিজমে ভুকছে। তাঁর চিকিৎসার জন্য প্রাথমিকভাবে ১০ হাজার টাকা প্রদান ও মেডিকেলে রেফার্ড করা হয়েছে।

এসময় আছিম উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ডা.সাখাওয়াত হোসেন শামীম, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সাখওয়াত হোসেন, উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার মো. মোজাম্মেল হক মারুফ, উপজেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের কো-অর্ডিনেটর মো. হুমায়ন কবীর ২নং ওয়ার্ডের মেম্বার মোঃ গোলাম রব্বানী প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

আশরাফুল/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: