প্রচ্ছদ / জাতীয় / বিস্তারিত

মেহেদি হাসান হাসিব

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজনৈতিক দলগুলোর আয়-ব্যয়ের হিসাব জমা দেওয়ার সময় বাড়লো

   
প্রকাশিত: ৮:১৯ অপরাহ্ণ, ১৯ আগস্ট ২০২২

আইনে বাধ্যবাধকতা থাকায় প্রতি বছর রাজনৈতিক দলগুলোকে ইসিতে আয়-ব্যয়ের হিসাব দিতে হয়। ২০২১ পঞ্জিকা বছরের আয়-ব্যয়ের হিসাব জমা দেওয়ার শেষ দিন ছিল ৩১জুলাই। যা বৃদ্ধি করে এখন জন্য ৩১ আগস্ট পর্যন্ত করা হয়েছে। নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সিনিয়র সহকারি সচিব রওশন আরা জানিয়েছেন- ৩১ জুলাই আয়-ব্যয়ের হিসাব জমা দেওয়ার সময় শেষ হয়েছিল। তবে ১৩ টি দল নির্ধারিত সময়ে হিসাব দিতে না পারায় সময় বাড়ানোর আবেদন করেছি। এক্ষেত্রে তাদের ৩১ আগস্ট পর্যন্ত সময় দেওয়া হয়েছে।

নির্ধারিত সময়ে হিসাব দিতে পারেনি যে ১৩টি দল- বাংলাদেশের সাম্যবাদী দল, জাতীয় পার্টি-জেপি, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডি, বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি (ন্যাপ), বাংলাদেশ মুসলিম লীগ, বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট (মুক্তিজোট), বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি, জাকের পার্টি, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ, গণফ্রন্ট, বিকল্প ধারা বাংলাদেশ, গণফোরাম ও বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি।

নির্ধারিত সময়ে জমা দিয়েছে যে ২৬ দল- বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি, গণতন্ত্রী পার্টি, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি, জাতীয় পার্টি, লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি-এলডিপি, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ, বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি-বিজেপি, বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন, বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন, ন্যাশনাল পিপলস পার্টি (এনপিপি), জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ, বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ, বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি, ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ, ইসলামী ঐক্যজোট, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট, বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি, খেলাফত মজলিস, বাংলাদেশ মুসলিম লীগ-বিএমএল, বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট-বিএনএফ, জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক আন্দোলন-এনডিএম, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস ও বাংলাদেশ কংগ্রেস। রাজনৈতিক দল নিবন্ধনের আইন অনুযায়ী, পরপর তিন বছর কোনো দল আয়-ব্যয়ের হিসাব জমা না দিলে নিবন্ধন বাতিল করার বিধান রয়েছে।

ইমদাদ/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: