প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

অল্প বৃষ্টিতেই জলাবদ্ধতা, ভোগান্তিতে ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের যাত্রীরা

   
প্রকাশিত: ৬:১২ অপরাহ্ণ, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

মোহাম্মদ আবির, আখাউড়া (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) থেকে: অল্প বৃষ্টি হলেই তৈরি হয় জলাবদ্ধতা,ধীর গতিতে পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা থাকার কারণে ভোগান্তিতে পড়তে হয় যাত্রীদের। এই চিত্র ব্রাহ্মাণবাড়িয়ার আখাউড়া আন্তর্জাতিক ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট এর মাঠে। আজ বুধবার (১৪ সেপ্টম্বর) সকালে আখাউড়া আন্তর্জাতিক ইমিগ্রেশন চেকপোস্টে দেখা যায়, ২ দিনের ভারী বৃষ্টিতে ইমিগ্রেশন ভবনের সামনে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে। এতে করে ভারত-বাংলাদেশের পাসপোর্টধারী যাত্রীদের ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে।ইমিগ্রেশন ভবন মাঠসহ রাস্তা থেকে একটু নিচু হওয়াতে বৃষ্টি হলেই এই দুর্ভোগ পোহাতে হয় সাধারণত যাত্রীদেরকে।

ভারতের সাতটি অঙ্গ রাজ্যের সাথে সহজ যোগাযোগ এর অন্যতম জনপ্রিয় রোড হল আখাউড়া আন্তর্জাতিক ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট। ঢাকা-চট্রগ্রাম-সিলেট সহ দেশের বিভিন্ন জেলার সাথে আখাউড়া স্থলবন্দরের যোগাযোগ ভাল হওয়ায় দিন দিন ভ্রমণ পিপাসুদের কাছে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে এই স্থল বন্দরটি। জরাজীর্ণ ভবন নিয়ে কোনমতে কর্যক্রম চললেও দেখা যাচ্ছে অল্প বৃষ্টি হলেও ইমিগ্রেশন ভবনটি সামনে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়। যাত্রী ও কর্মকর্তারা পানিতে ভিজেই যেতে হচ্ছে ইমিগ্রেশন ভবনে।

ভারতগামী পাসপোর্টধারী এক যাত্রীর সাথে কথা হলে তিনি বলেন, আমার ব্যাক্তিগত কাজে ভারতের আগরতলা বিমানবন্দরে থেকে কলকাতা যাব। কিন্তু ইমিগ্রেশন ভবনের সামনে এসে দেখি বৃষ্টি পানি জমে আছে। ইমিগ্রেশন ভবনের ভিতরে কি ভাবে যাব এইটি নিয়ে চিন্তায় আছি।

এ বিষয়ে আখাউড়া ইমিগ্রেশন ইনচার্জ উপপরিদর্শক স্বপন চন্দ্র দাস এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ইমিগ্রেশন ভবনটি মূল সড়ক থেকে নিচু জায়গায় অবস্থিত, সেই জন্য বৃষ্টি হলেই এখানে বৃষ্টি পানি জমে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়। আর দুই দিন ধরে টানা বৃষ্টি থাকায় পাশে থাকা পুকুরের পানি বৃদ্ধি পেয়ে ভবনের সামনে চলে এসেছে। বৃষ্টি কমে গেলে পানি নেমে যাবে।

সালাউদ্দিন/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: