প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

সাহিদুজ্জামান সাহিদ

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি

বাসায় প্রবেশের পথে ময়লার স্তূপ, পৌরসভার মেয়র বিরুদ্ধে অভিযোগ

   
প্রকাশিত: ৬:২২ অপরাহ্ণ, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২২

জামালপুর পৌরসভার জঙ্গলপাড়ায় এক পৌর বাসিন্দার বাসার প্রবেশপথে ময়লা ফেলা ও বাসার সীমানা প্রাচীর ভাঙার অভিযোগ উঠেছে পৌর মেয়র ছানোয়ার হোসেন ছানুর বিরুদ্ধে। গতকাল বুধবার রাতে সরেজমিনে দেখা গেছে, জামালপুর পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ডের জঙ্গলপাড়া বোর্ডঘর সড়কের পাশে একরামুল হকের বাসার প্রবেশপথে ময়লার স্তূপ দিয়ে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ময়লার স্তূপ থেকে তীব্র দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে।

ভুক্তভুগী একরামুল হক বলেন, ‘আমার বাড়ির পাশ দিয়ে পলিশা মৌজার সরু পথ ছিল। অবৈধ দখলের কারণে বিলুপ্ত হয়ে গেছে। রাস্তা নতুন করে তৈরি করতে গিয়ে ভুল সীমা নির্ধারণ করে পৌর কর্তৃপক্ষ। এ নিয়ে ২০১৭ সাল থেকে পৌরসভার সঙ্গে আমার মামলা চলছে।’ ‘নিষেধাজ্ঞা চলা অবস্থায় নিষেধাজ্ঞা অবমাননার দায়ে ভায়োলেশন মামলা হয়,’ উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, ‘হঠাৎ গত ১৮ সেপ্টেম্বর মেয়র তার ভাড়াটিয়া লোক নিয়ে জোরপূর্বক টিনের বাউন্ডারি ভাঙচুর করে ও ফলজ গাছপালা কাটে।’

তিনি আরো অভিযোগ করেন, ‘পুলিশের সহায়তা চেয়ে আবেদন করায় পুলিশ কাজে বাধা দিলে তারা নিজেদের সরকার দলীয় লোক পরিচয় দিয়ে হুমকি দেয় ও গালিগালাজ করে। পুলিশ চলে গেলে জামালপুর পৌরসভার ২টি গাড়ি পঁচা-দুর্গন্ধযুক্ত ময়লা বাসার প্রবেশপথে ফেলে যায়। সিসি ক্যামেরায় রেকর্ড আছে।

পৌর মেয়র ছানোয়ার হোসেন ছানু বলেন, আমার পৌরসভার গাড়ি সেখানে ময়লা ফেলেনি। কেউ যদি ফেলে থাকে তাহলে সময় এলে পরিষ্কার করে দেওয়া হবে।

জামালপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাজী শাহনেওয়াজ বলেন, ‘একরামুলের বাসার গেইটে ময়লা ফেলার কথা শুনেছি। কে বা কারা ফেলছে তা জানি না।’

সালাউদ্দিন/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: