প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

মোঃ হাবিবুর রহমান

নড়াইল প্রতিনিধি

ভোটে হেরে লেবু চাষ করে বুলবুলের বাজিমাত

   
প্রকাশিত: ১১:৩৮ পূর্বাহ্ণ, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২

ছবি - প্রতিনিধি

নড়াইলের লোহাগড়া পৌরসভার সাবেক কাউন্সিলর বুলবুল আহমদ লেবু চাষ করে সফলতা অর্জন করেছেন। গত পৌরসভা নির্বাচনে পরাজিত হওয়ার পর তিনি প্রায় ৪০ শতাংশ জমিতে চায়না লেবু চাষ শুরু করেন। এখন লেবু থেকে প্রতি মাসে অন্তত ৫০ হাজার টাকা উপার্জন করছেন তিনি। তাঁকে দেখে অনেকেই লেবু চাষে উৎসাহিত হচ্ছেন।

পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সিংগা গ্রামের লেবুচাষি বুলবুল আহমদ জানান, দীর্ঘদিন ধরে জনপ্রতিনিধি হয়ে এলাকার সাধারণ জনগণের সেবা করেছেন তিনি। গত পৌর নির্বাচনে পরাজিত হয়ে কৃষিকাজে মনোনিবেশ করেন। ইতিমধ্যে তিনি মাঠের জমিতে ধান, গরুর খামার, গরুর খাবারের জন্য ঘাস এবং চায়না লেবুর চাষ করেছেন।

এ বছর তাঁর ওই জমিতে রোপণ করা তিন শতাধিক লেবুগাছে প্রচুর ফল এসেছে। একদিন পরপর এক থেকে দেড় হাজার লেবু তুলে লোহাগড়া বাজারে তিন থেকে চার হাজার টাকায় বিক্রি করেন। এতে মাসে তাঁর ৫০ থেকে ৬০ হাজার টাকার লেবু বিক্রি হয়।

সরেজমিনে পৌরসভার সিংগা গ্রামে লেবুখেতে গিয়ে দেখা গেছে, উঁচু একটি জমিতে সারিবদ্ধভাবে লেবুগাছ লাগানো হয়েছে। চারপাশ দিয়ে নেটজাল দিয়ে ঘেরা রয়েছে। খেতের পাশ দিয়ে বিভিন্ন ধরনের ফলের গাছ লাগানো হয়েছে। বুলবুল নিজেসহ কিষানিরা গাছের চারপাশ দিয়ে বাঁশ দিয়ে বেঁধে উঁচু করে দিচ্ছেন এবং জমির আগাছা পরিষ্কার করছেন।

উপজেলা উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মো. আলমগীর হোসেন বলেন, দোআঁশ মাটি লেবু চাষের জন্য উপযুক্ত। এই লেবুর রস বেশি। গাছে ফলের পরিমাণ বেশি। পোকামাকড়ের উপদ্রবও কম। কম সময়ে ও কম খরচে লেবু চাষ করা সম্ভব। গাছ যত বড় হবে, লেবু তত বেশি হবে।

লেবুচাষি বুলবুল জানান, লেবুর খেতে কৃষি অফিসের পরামর্শ অনুযায়ী সময়মতো সার-ওষুধ দিয়ে দেন। এ বছর লেবু বিক্রি করে খরচ বাদে প্রায় চার লাখ টাকা লাভ হবে।

লোহাগড়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা ইমরান হোসেন ও রঞ্জু মিয়া জানান, লেবুচাষি বুলবুল তাঁর লেবু খেতের জন্য অফিসে এসে পরামর্শ নেন। অফিস থেকে লোক গিয়ে খেত পরিদর্শন করে এবং তাঁকে পরামর্শ দেয়।

আশরাফুল/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: