প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

‘যাত্রীরা একে অন্যকে জড়িয়ে ধরে বাঁচার আকুতি করছিল’

   
প্রকাশিত: ৫:৫৮ অপরাহ্ণ, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২

পঞ্চগড়ের বোদায় করতোয়া নদীতে নৌকাডুবির ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৩৪ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এখনও নিখোঁজ রয়েছেন অর্ধশতাধিক। ভয়াবহ এই নৌদুর্ঘটনা ঘটনা থেকে বেঁচে যাওয়া যাত্রী মাড়েয়া বামনপাড়া এলাকার সুবাস চন্দ্র রায় বলেন, নৌকায় আমরা পাঁচজন বন্ধু ছিলাম। কোনমতে সাতার কেটে প্রাণে বেঁচে যাই।

তিনি আরো জানান, ডুবে যাওয়া নৌকায় দেড়শরও বেশি যাত্রী ছিল। নৌকায় উঠার পরপরই পানি উঠতে শুরু করে। এসময় মানুষজন হুড়োহুড়ি শুরু করেন। যাত্রীরা একে অন্যকে জড়িয়ে ধরে বাঁচার আকুতি করছিল। চরম এই মুহূর্ত বর্ণনা করার মত নয়। তবে এতো মানুষ মারা যাবেন, তা বুঝতে পারিনি। ইতিমধ্যে নিখোঁজ স্বজনদের খোঁজে নদীর পাড় ভিড় করছেন স্বজনেরা। এ সময় প্রিয়জনদের আহাজারিতে ভারী হয়ে উঠছে নদীপাড়ের বাতাস।

এই ঘটনার পর থেকেই সুগন্ধা নদীপাড়ে শত শত মানুষ ভিড় করছেন। কেউ কেউ নৌকা নিয়ে নদীতে খুঁজে বেড়াচ্ছেন প্রিয়জনকে। কারও হাতে নিখোঁজদের ছবি, তা নিয়ে নদী তীরের বাসিন্দাদের দেখাচ্ছেন আর বিলাপ করছেন। এখন পর্যন্ত নিখোঁজ ব্যক্তিদের স্বজনেরা প্রশাসনের কাছে ৬৬ জনের তালিকা দিয়েছেন। বোদা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. সোলেমান আলী জানান, ডুবে যাওয়া নৌকাতে ৭০ থেকে ৮০ জনের মতো যাত্রী ছিল। শ্যালো ইঞ্জিনচালিত নৌকাটি বড়শশী ইউনিয়নের বদেশ্বরী মন্দিরের দিকে যাচ্ছিল। এ সময় ঘাট থেকে কিছু দূর যাওয়ার পর নৌকাটি ডুবে যায়। মরদেহ শনাক্তের প্রক্রিয়া চলছে। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিহতদেরকে ২০ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে।

রেজানুল/সা.এ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: