প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

কাঁচপুরে পাওনা টাকা চাওয়ায় ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম

   
প্রকাশিত: ১০:৪১ অপরাহ্ণ, ৩ অক্টোবর ২০২২

মাজহারুল ইসলাম, সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) থেকেঃ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে কাঁচপুর সোনাপুর এলাকায় পাওনা টাকা চাইতে গেলে এক ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে প্রতিপক্ষ সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের পাশে কাঁচপুর এসএস পাম্পের সামনে।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী মহিয়ান ইসলাম (২৮) বাদী হয়ে ২ অক্টোবর রবিবার রাতে সোনারগাঁ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। ব্যবসায়ী মহিয়ান কাঁচপুর সোনাপুর এলাকার মৃত দেলোয়ার হোসেনের ছেলে।

অভিযোগে আহত মহিয়ান উল্লেখ করেন, একই এলাকার সফির ছেলে নাহিদ (২৫) ও দেলোয়ার হোসেন (২২), সেনপাড়া এলাকার ইউনুসের ছেলে ইমন (২৮), সোনাপুর এলাকার হুমায়ুন কবিরের ছেলে সালমান (২৪), সাদিপুর ইউনিয়নের বাইশটেংগী এলাকার আল-আমিনসহ গতকাল রবিবার সন্ধ্যা ৭ ঘটিকার সময় পাওনা টাকা চাইতে গেলে অজ্ঞাত আরো ৪/৫ জন মিলে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে লোহার রড ও দা-সহ বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে আমার উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এসময় তার ডাক চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে তার কাছে থাকা ব্যবসার ২ লক্ষ নগদ টাকা ও তার সাক্ষরিত দুটি ব্যাংক চেক ছিনিয়ে নিয়ে হত্যার হুমকি দিয়ে পালিয়ে যায়। এলাকাবাসী ব্যবসায়ী মহিয়ানকে উদ্ধার করে সোনারগাঁ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করার পর অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করে।

মহিয়ান ইসলাম বলেন, হামলাকারীরা খুবই খারাপ প্রকৃতির লোক, তারা মাদক ব্যবসার পাশাপাশি এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব করে যাচ্ছে। ১ নং বিবাদী নাহিদ আমার কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা ধার নিয়েছিলো, সে টাকা চাইতে গেলে আমাকে মারধর করে নগদ ২ লক্ষ টাকা ও আমার সাক্ষরিত ব্যাংক চেক নিয়ে যায়।

এলাকাবাসী জানায়, মহিয়ান ইসলাম একজন (ঠিকাদার) ব্যবসায়ী। সে খুবই ভালো মানুষ। যারা তার উপর হামলা করেছে তারা সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ ও মাদকব্যবসা-সহ সকল খারাপ কাজের সাথে জড়িত। এসকল সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার জন্য জোর দাবী জানান এলাকাবাসী।

সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাফিজুর রহমান বলেন, এ ঘটনায় ব্যবসায়ীর লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে আসামীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

শাকিল/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: