খুব সহজেই ইভ্যালিতে বিনিয়োগ আসা সম্ভব: শামীমা নাসরিন

   
প্রকাশিত: ১০:২৩ পূর্বাহ্ণ, ৭ অক্টোবর ২০২২

বাংলাদেশের আলোচিত ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির কার্যক্রম প্রায় এক বছর বন্ধ থাকার পর তাদের কার্যক্রম আবার শুরু করতে যাচ্ছে। এ বিষয়ে বৃহস্পতিবার (৬ অক্টোবর) বিকেলে এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে আসেন প্রতিষ্ঠানটির সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিন। তিনি বলেন, বাংলাদেশের আলোচিত ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালিতে খুব সহজেই বিনিয়োগ আসা সম্ভব বলে। এজন্য সুষ্ঠুভাবে ব্যবসা পরিচালনা করার সুযোগ দরকার।

শামীমা নাসরিন বলেছেন, আমাদের দেনা পরিশোধে সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন দেশি-বিদেশি বিনিয়োগ। আগামী একবছর নিরবচ্ছিন্ন ব্যবসা করতে পারলে বিনিয়োগ পাওয়া সম্ভব।

তিনি বলেন, আমরা মনে করি ইভ্যালির ৪৫ লাখ ক্রেতা ও ৩০ হাজার বিক্রেতা দৈনন্দিন প্রয়োজনে নিয়মিত কেনাকাটা করলে সহজেই দেশি-বিদেশি বিনিয়োগ আসা সম্ভব। অনেকেই হয়ত অবগত আছেন, আগে ইভ্যালিতে বিনিয়োগের জন্য বিনিয়োগকারীদের সঙ্গে আমরা কথা বলেছি। তারই ধারাবাহিকতায় বর্তমানে আমাদের সুষ্ঠুভাবে ব্যবসা পরিচালনা করার সুযোগ তৈরি হলে খুব সহজেই বিনিয়োগ আসা সম্ভব হবে বলে আমার দৃঢ় বিশ্বাস।

তিনি বলেন, কিছু-কিছু ক্ষেত্রে ব্যবসায়িক নীতিমালার ত্রুটিগুলো আমরা স্বীকার করে দেনা-পাওনা এবং সব পেন্ডিং অর্ডার ডেলিভারির জন্য ছয় মাস সময় চেয়েছিলাম। তবে সেই সময় পাওয়ার আগেই পাওনা পরিশোধ বিলম্ব হওয়ার অভিযোগ এবং চেক ডিজঅনার সম্পর্কিত মামলায় আমরা গ্রেপ্তার হই।

ইভ্যালির সহ-প্রতিষ্ঠাতা বলেন, আমাদের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক গ্রেপ্তার হওয়ার পরও প্রচন্ড মানসিক কষ্টকে নিয়ন্ত্রণ করে জামিন চাওয়ার আগে কোম্পানি পরিচালনা করার অনুমতি প্রার্থনা করেছেন।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে যাত্রা শুরু করে ইভ্যালি। তবে পণ্য ডেলিভারিতে ব্যর্থ হওয়ায় পাহাড়সম অভিযোগ জমা হয় তাদের বিরুদ্ধে। গ্রাহকদের এমন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ইভ্যালির ব্যবসায়িক কার্যক্রম নিয়ে অনুসন্ধানে নামে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

নাঈম/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: