প্রচ্ছদ / জাতীয় / বিস্তারিত

বৈশ্বিক ক্ষুধা সূচকে শ্রীলঙ্কার চেয়ে পিছিয়ে আছে বাংলাদেশ!

   
প্রকাশিত: ৯:৩৪ পূর্বাহ্ণ, ১৪ অক্টোবর ২০২২

ছবি: ইন্টারনেট

বৈশ্বিক ক্ষুধা সূচকে (জিএসআই) গত বছরের তুলনায় অবনতি হয়েছে বাংলাদেশের। বিশ্বের ১২১ দেশের তালিকার বাংলাদেশের স্থান ৮৪ তম। যা গত বছরের তুলনায় ৮ ধাপ অবনতি হয়েছে। গত বছর ছিলো ৭৬ তম স্থানে। বৃহস্পতিবার (১৩ অক্টোবর) আয়ারল্যান্ড-ভিত্তিক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা কনসার্ন ওয়ার্ল্ডওয়াইড এবং জার্মানির ওয়েল্ট হাঙ্গার হিলফ যৌথভাবে বৈশ্বিক ক্ষুধা সূচক-২০২২ প্রকাশ করেছে।

বৈশ্বিক ক্ষুধা সূচক দেখা যাচ্ছে আমাদের প্রতিবেশী দেশ ভারত (১০৭তম) ও পাকিস্তানের (৯৯তম)। তবে অবাক করার বিষয় হলো অর্থনৈতিক সংকটে টাল-মাটাল অবস্থায় বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তানের তুলনায় এগিয়ে আছে শ্রীলংকা।

অর্থনৈতিক পরিস্থিতি, শিশু স্বাস্থ্য আর সম্পদ বণ্টনে বৈষম্যের মতো বিষয়গুলোকে মাপকাঠি ধরে ক্ষুধা সূচক তৈরি করা হয়। বিবেচনায় রাখা হয় অপুষ্টি, পাঁচ বছরের কমবয়সী শিশুদের উচ্চতা, মৃত্যুহার, উচ্চতার তুলনায় ওজন প্রভৃতি। চলতি বছরের এই সূচকে বাংলাদেশের স্কোর ১৯ দশমিক ৬।

জিএসআইয়ের ২০২২ সালের স্কোর অনুযায়ী, বিশ্বের ১২১টি দেশের মধ্যে অন্তত ৯টি দেশে ক্ষুধার মাত্রা উদ্বেগজনক পর্যায়ে পৌঁছেছে। এছাড়া অন্য আরও ৩৫টি দেশের গুরুতর ক্ষুধা পরিস্থিতি রয়েছে। উদ্বেগজনক ক্ষুধা রয়েছে এমন দেশগুলো হলো- মধ্য আফ্রিকান প্রজাতন্ত্র, চাদ, গণপ্রজাতন্ত্রী কঙ্গো, মাদাগাস্কার, ইয়েমেন, বুরুন্ডি, দক্ষিণ সুদান ও সিরিয়া।

কনসার্ন ওয়ার্ল্ডওয়াইডের সিইও ডমিনিক ম্যাকসরলি বলেন, আমাদের এক ভয়াবহ বাস্তবতার মুখোমুখি করেছে বৈশ্বিক ক্ষুধা সূচক। সংঘাত, জলবায়ু পরিবর্তন এবং করোনা মহামারি ইতোমধ্যেই লাখ লাখ মানুষকে খাদ্য মূল্যবৃদ্ধির সংকটে ফেলেছে। প্রতিদিন বৃদ্ধি পাচ্ছে খাদ্যদ্রব্যের দাম। এরমধ্যেই এখন ইউক্রেন যুদ্ধ বৈশ্বিক সরবরাহ এবং খাদ্য, সার ও জ্বালানির মূল্যে আঘাত হেনেছে। আর এ সংকট ধীরে ধীরে সমগ্র বিশ্বের জন্যই বিপর্যয়কর রূপ নিতে শুরু করেছে বলে সতর্ক করেন তিনি।

বৈশ্বিক ক্ষুধা সূচক-২০২২ দেখতে ক্লিক করুন

তুহিন/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: